টাইমলাইনভারত

বউ নয়, বর পালাল! ডাক্তার কনে বিয়ে করল বাস কন্ডাক্টারকে

কিছুদিন ধরে বাংলায় জনপ্রিয় টুম্পা গানের ‘বউ পালাল জানালা দিয়ে’ পঙতি খুবই পছন্দ হয়েছে নেটিজেনদের। ফুলসজ্জার পরের দিন বউ পালানোর পর টুম্পাকে পেয়েছিল গানের যুবক। এবার বিয়ের ঠিক আগ মুহুর্তে বর পালানোর পর কনে পেল বেঙ্গালুরু মেট্রোপলিটন ট্রান্সপোর্ট কর্পোরেশনের বাস কন্ডাকটর চন্দ্রাপ্পাকে।


কথায় বলে জন্ম,মৃত্যু আর বিয়ে নাকি বিধাতার লিখন। কার কখন কোন মানুষের সাথে বিয়ে হবে তা কেউই জানে না। এমনই কাহিনী ঘটল কর্ণাটকে। বিয়ের ঠিক আগেই চম্পট দিয়েছেন হবু বর। শেষ পর্যন্ত বিয়ে বাড়িতে নিমন্ত্রণ খেতে আসা এক যুবক বসল বিয়ের আসনে।

কর্নাটকের চিকমাগালুরু জেলায় পেশায় পেশায় চিকিৎসক, এমবিবিএস এবং এমডি সিন্ধুর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল পেশায় বহুজাতিক সংস্থার কনসালট্যান্ট নবীনের সঙ্গে। সব কিছু ঠিক ঠাকই ছিল, কিন্তু শেষ মুহূর্তে বেঁকে বসেন নবীনের প্রাক্তন বান্ধবী। তাকে হুমকি দেন যদি এই বিয়ে হয় তবে ঘর ভর্তি অতিথি অভ্যাগতদের সামনে আত্মহত্যা করবেন তিনি।

নবীন বাধ্য হয় বিয়ে না করে পালাতে। অন্যদিকে নবীনের হবু স্ত্রী তখন কেঁদে আকুল। শেষ পর্যন্ত বরের খোঁজে নেমে পড়েন কনের পরিবারের সদস্যরা। অবশ্য বেশি খুঁজতে হয় নি। হাতের কাছে পাওয়া গেল সৎ পাত্র ঐ বাস কর্মীকে। ব্যাস, টোপর মাথায় বিয়ের মন্ডপে বসে পড়লেন দুজনেই। নিমন্ত্রণ খেতে এসে ডাক্তার ঘরনী নিয়েই শেষ পর্যন্ত বাড়ি ফিরলেন বেঙ্গালুরু মেট্রোপলিটন ট্রান্স পোর্ট কর্পোরেশনের বাস কন্ডাকটর চন্দ্রাপ্পা। তার ভাগ্যটাও মন্দ নয়।

 

Back to top button