টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

মধ্যবিত্তের জন্য খুশির জোয়ার, নবান্নের নির্দেশে বাংলায় কমবে আলুর দাম

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে (West bengal) বাড়তে থাকা করোনা পরিস্থিতির মধ্যে সবজির বাজার আগুন। তাঁর মধ্যে সবথেকে বেশি নজর কাড়ছে আলু। আলু এমন একটি খাদ্য শস্য, যা সকলেরই প্রিয়। কিন্তু এই আলু কিনতে গিয়েই যে ফোসকা পড়ছে মধ্যবিত্তের হাতে। বিগত কয়েকদিনে আকাশ ছোঁয়া দাম বেড়েছে আলুর।

আগুন ছোঁয়া আলুর দাম
শহর কলকাতার দোকান হোক বা গ্রামের দোকান, সবেতেই একই চিত্র ধরা পড়েছে বেশ কিছুদিন ধরে। ৩০ টাকার নিচে কোন আলু নেই। জ্যোতি আলু কেজি প্রতি ৩০ টাকা এবং চন্দ্রমুখী আলু সেত আরও বেশি, কেজি প্রতি ৩৫ টাকা। আলু কিনতে গিয়ে খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছে ক্রেতাদের।

নবান্নের নির্দেশ
এবার এই আলুর বাড়তে থাকা দাম নিয়ে সরব হলে মুখ্যমন্ত্রী। এদিন নবান্নের এক বৈঠকে আলুর দাম নিয়েও আলোচনা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। জোর গলায় বললেন, মাত্র ৫ দিনের মধ্যেই কমাতে হবে আলুর দাম। রবিবার থেকেই বাজারে যেন ২৫ টাকা কেজি দরে আলু পাওয়া যায়। এর অন্যথা হলে, সরকার পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হবে। সেই সঙ্গে আরও জানিয়েছে দিলেন, কোল্ড স্টোরেজে ৪০ বস্তার বেশি আলু কেউ মজুত করতে পারবেন না।

রপ্তানি হচ্ছে আলু
আলুর উৎপাদনে কোন কমতি না থাকলেও, রাজ্যের আলু ব্যবসায়ীরা কোল্ড স্টোরেজে আলু সঞ্চয় করে রাখছেন। তাঁর উপর বিহার, ঝাড়খণ্ড, ছত্তীসগড় ও ওড়িশাতেও এরাজ্য থেকে আলু রপ্তানি হচ্ছে। যার কারণে আলু পর্যাপ্ত পরিমাণে উৎপন্ন হলেও, তা মানুষের চাহিদা মেটাতে পারছে না। তাই এবার সরকার এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিলেন।

Back to top button