টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

বড় খবরঃ পুজো কমিটির আবেদনে সামান্য রদবদল হাইকোর্টের, তবে দর্শকশূন্যই থাকবে মণ্ডপগুলো

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ সোমবারের রায়ে সামান্য বদল আনল মহামান্য আদালত। সোমবারের রায়ে সামান্য বদল এনে হাইকোর্টের বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় ও সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেঞ্চ আজকে রায় দেয় যে, প্যান্ডেলে ঢাকিরা থাকত্রে পারবে। এছাড়া বড়বড় পুজো মণ্ডপে ৬০ জন সদস্য একসাথে থাকতে পারবেন। এবং একসাথে ৪৫ জন সদস্য মণ্ডপে ঢুকে ঠাকুর পরিদর্শন করতে পারবেন।

জানিয়ে দিই, গত সোমবার বিচারপতিরা জানিয়েছিলেন যে, পুজো মণ্ডপে পুজো কমিটির মাত্র ১৫ জন সদস্যই একসাথে ঢুকতে পারবেন। এছাড়াও যেই ১৫ জনের নাম দেওয়া হবে, তাঁদের তালিকা রোজ রোজ বদল করা যাবে না। আজ আদালতের রায়ে বলা হয়েছে যে, একসাথে ৬০ জন সদস্য মণ্ডপে ঢুকতে পারবেন, আর তাঁদের নাম রোজ রোজ বদলও করা যাবে। সকাল আটটার মধ্যে পুজো কমিটির সদস্যদের নামের তালিকা পুলিশকে দিয়ে দিতে হবে।

আদালত জানিয়েছে যে, যেসব মণ্ডপের আয়তন ৩০০ স্কোয়ার মিটার অথবা তাঁরও বেশি, একমাত্র সেগুলোই বড় পুজো হিসেবে গণ্য হবে। এদিন কলকাতার দুর্গাপুজো কমিটিগুলির যৌথ আবেদনে বলা হয় যে, মণ্ডপগুলোতে অন্তত পক্ষে স্থানীয়দের যেন সপ্তমী থেকে নবমী পর্যন্ত প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়া হয়। এরফলে তাঁরা সুষ্ঠ ভাবে পুজো দিতে পারবে। কিন্তু আদালতের পক্ষ থেকে এই আবেদন মেনে নেওয়া হয়নি। বড়সড় কোনও পরিবর্তন হয়নি আজকের এই রায়ে। পুজো মণ্ডলগুলো আগের মতই দর্শকশূন্যই থাকছে।

Back to top button