টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

আমরাও জিতেছি, কাওর গায়ে হাত দেওয়া দূরের কথা কটূক্তি পর্যন্ত করা হয়নি! মমতাকে খোঁচা হিমন্তর

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর থেকেই চারিদিকে হিংসার খবর উঠে আসছে। কোথাও পার্টি অফিস আবার কোথাও বিরোধী দলের কর্মী বাড়িতে ভাঙচুর চালানোর ঘটনা সামনে আসছে। এমনকি ভোট পরবর্তী হিংসার বলি হয়েছে ৬ জন দাবি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। রাজ্যের চারিদিকে এমন হিংসা ছড়িয়ে পড়ার পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক রাজ্য সরকারের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে।

আরেকদিকে, বাংলা বাদেও আর পাঁচ রাজ্যের ফলাফল ঘোষণা হয়েছে ২ মে। কিন্তু বাকি রাজ্যগুলি থেকে এখনও কোনও হিংসার খবর সামনে আসেনি। আর এরই মধ্যে অসমের প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা একটি টুইট করে পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে খোঁচা দিয়েছেন। বলে রাখি, তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে নিজের ইস্তফা দিয়েছেন।

অসমের প্রাক্তন শিক্ষা মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্ব শর্মা একটি টুইট করে লিখেছেন, ‘২৪ ঘণ্টা হয়ে গিয়েছে বিজেপি অসমে জিতেছে। একজন কংগ্রেসের কর্মীকে কটাক্ষ পর্যন্ত করা হয়নি, হাতাহাতি-মারধোর তো দূরের কথা। কিন্তু বাংলার দিদি আর দাদারা মিলে সন্ত্রাসের আবহ তৈরি করেছে, বিজেপির কর্মীদের খুন করা হচ্ছে, সভ্য সমাজ কি পার্থক্যটা দেখতে পাচ্ছে?”

বলে দিই, সোমবার কালীঘাটের বাড়ি থেকে একটি সাংবাদিক বৈঠক করেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি শীতলকুচি আর বর্ধমানে হিংসা হচ্ছে বলে উল্লেখ করলেও বিজেপির বিরুদ্ধে পাল্টা তোপ দাগেন। তিনি বলেন, বিজেপির পুরনো ছবি দেখিয়ে হিংসার অভিযোগ করছে। এটা ওদের স্বভাব। ওদের ভালমতো চিনি।

Back to top button