টাইমলাইনবিনোদনরাজনীতি

দূর্ভাগ‍্য যে পশ্চিমবঙ্গে জন্মগ্রহণ করেছি, এ রাজ‍্য অভিশপ্ত! বিতর্ক বাড়ালেন হিরণ চট্টোপাধ‍্যায়

বাংলাহান্ট ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গে (West Bengal) জন্ম গ্রহণ করা অভিশাপের মতো, হিরণ চট্টোপাধ‍্যায়ের (Hiran Chatterjee) মন্তব‍্যে মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে বিতর্ক। কেন্দ্রীয় সরকারের আয়ুষমান ভারতের মতো প্রকল্প বাংলায় চালু করতে দেওয়া হচ্ছে না। গোটা দেশ যে উন্নয়নের স্বাদ পাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গবাসীরা তা থেকে বঞ্চিত। তাই এ রাজ‍্যে জন্মানো অভিশাপের মতো বলেই মনে করেন হিরণ।

হিরণ বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী গোটা দেশ জুড়ে উন্নয়নের অভিযান চালিয়েছেন। সেখানে পশ্চিমবঙ্গবাসীরা অভিশপ্ত। এখানে আয়ুষমান ভারতের কার্ড পাওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু স্বাস্থ‍্যসাথীর কার্ড পাওয়া যাচ্ছে। যেটা অনেক হাসপাতাল নেয় না। ফলতঃ এ হাসপাতাল ও হাসপাতাল ঘুরতে ঘুরতেই মানুষ মারা যাচ্ছে।


হিরণের কথায়, “নরেন্দ্র মোদী কোথাও কোনো ভেদাভেদ করেননি। তিনি পশ্চিমবঙ্গকে যতটা গুরুত্ব দেন ততটা গুজরাটকেও দেন। উত্তরপ্রদেশে যে বিকাশ করেন, সেটা পশ্চিমবঙ্গেও করেন। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ সরকার সর্বক্ষণ, এমনকি স্বপ্নের মধ‍্যে দেখে কীভাবে কেন্দ্রের সেবামূলক প্রকল্পগুলো এ রাজ‍্যের মানুষের কাছে পৌঁছানো থেকে আটকানো যায়।”

এ রাজ‍্যের সরকার, প্রশাসন, পুলিস সবাই একটা দল হয়ে গিয়েছে, দাবি হিরণের। এমনকি বাইরে থেকে কোনো আইএএস বা আইপিএস অফিসার পশ্চিমবঙ্গে পোস্টিং পেলেও এই দলে যুক্ত হতে বাধ‍্য হন। কিন্তু যারা পশ্চিমবঙ্গে জন্মেছেন তাদের দূর্ভাগ‍্যতা। তাদের এখানেই থাকতে হচ্ছে।

হিরণের আরো অভিযোগ, তিনি যখনি খড়গপুরে কোনো উন্নয়নমূলক কাজ করতে যান তাঁকে বাধা দেওয়া হয়। অথচ তিনি রাজনীতি করতে আসেননি। তবুও পুলিস প্রশাসনকে তাঁর বিরুদ্ধে ব‍্যবহার করা হয়। তাই হিরণের মতে, এ রাজ‍্যে জন্মগ্রহণ করা অভিশাপের মতো।

Related Articles

Back to top button