টাইমলাইনবিনোদন

‘স্কুল যেতে আর ভাল লাগে না’, অভিনেত্রী হওয়ার দিকেই এখন বেশি মনোযোগ ‘পটলকুমার’ হিয়ার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: জনপ্রিয় বাংলা (bengali) ধারাবাহিক (serial) ‘পটলকুমার গানওয়ালা’র (potol kumar gaanwala) কথা সকলের মনে আছে নিশ্চয়ই। মিষ্টি মেয়ে পটলের অসাধারন ও সরল অভিনয় অচিরেই দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছিল। পটলের জন‍্যই টিআরপি তুঙ্গে উঠেছিল ওই ধারাবাহিকের। তবে সেই পটলকে এখন দেখলে চেনা যে বেশ দুষ্কর হয়ে উঠবে তা বলা বাহুল‍্য।

পটলের ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন হিয়া দে (hiya dey)। তারপর জি বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘আলো ছায়া’তে আলোর ছোটবেলার চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। সেই ছোট্ট মেয়েকে এখন দেখলে রীতিমতো চমকে উঠবেন সিরিয়াল প্রেমীরা। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অভিনয়ও বেশ ধারালো হয়ে উঠেছে হিয়ার। আলো ছায়ার পর বেশ অনেকটা সময় বিরতির প‍র এবার ‘ফেলনা’র হাত ধরে আবারো পর্দায় ফিরেছেন তিনি।


স্টার জলসার সিরিয়ালে ছোট্ট মেয়ে ফেলনার একটু বড় বেলার চরিত্রে অভিনয় করছেন হিয়া। এবারে তিনি জাদুকরের ভূমিকায়। বিধিনিষেধ চলাকালীনই প্রকাশ‍্যে এসেছিল ফেলনারূপী হিয়ার প্রোমো। বেশ কিছুদিন বাড়িতে শুট করতে হয়েছে তাঁকে। হিয়া জানান, বাবা, মা, দিদিই তাঁকে সাহায‍্য করেছেন শুট করতে।

শুট ফ্রম হোমের সময় হিয়ার মা হতেন পরিচালক, বাবা টেকনিশিয়ান ও দিদি মেকআপ আর্টিস্ট। এক আত্মীয়ের বানানো পোশাক ও দিদির কানের দুল পরে দিব‍্যি শুটিং করেছেন হিয়া। তবে এখন ফ্লোরে হিরলেও আগের সেই পরিবেশটা খুব মিস করেন তিনি। আগে শটের ফাঁকে গোটা ফ্লোরে ঘুরে বেড়াতে পারতেন। কিন্তু এখন মেকআপ রুমেই বসে থাকতে হয়। তার উপর মাস্ক, স‍্যানিটাইজারের ঝক্কি তো আছেই।

তবে একদিক দিয়ে বেশ নিশ্চিন্তই হয়েছেন হিয়া। শুটিং ফ্লোরেই সারাদিন কেটে গেলেও আগের মতো আর ক্লাস মিস হওয়ার ভয় নেই। অনলাইন ক্লাস তো ফ্লোর থেকেও করতে পারেন তিনি। উপরন্তু স্কুলে অনুপস্থিত হওয়ার জন‍্য আর বকুনিও খেতে হয় না তাঁকে।

কিন্তু হিয়া স্বীকার করেন, অনলাইন ক্লাস করে করে এখন স্কুলে যাওয়ার ইচ্ছাটাই চলে গিয়েছে তাঁর। সকালে তাড়াতাড়ি উঠে তৈরি হয়ে স্কুলে যাওয়ার থেকে এই পদ্ধতিটাই বেশ ভাল লেগেছে হিয়ার। তাছাড়া বন্ধু বান্ধবদের কথা মনে পড়লে ভিডিও কল তো আছেই। তাই আপাতত অভিনয়ের দিকে বেশি মনোযোগ দিচ্ছেন হিয়া।

Related Articles

Back to top button