টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসার মধ্যেই বিজেপি বিধায়কদের নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ রাজ্যে নির্বাচনের প্রাক্কালে ২৯৩টি আসনের বিজেপি (bjp) প্রার্থীদের কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছিল। তবে নির্বাচন শেষে ১০ ই মে তাঁদের নিরাপত্তা প্রত্যাহার করে নেওয়ার কথা বললেও, এবিষয়ে এক বড় সিদ্ধান্ত নিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক (Home Ministry)।

এখনই সরানো হচ্ছে না কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা। জয়ী বিজেপি বিধায়কদের কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দেওয়ার পাশাপাশি, পরাজিত বিজেপি প্রার্থীদেরও নিরাপত্তার মেয়াদ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক- এমনটাই জানা গিয়েছে। ভোট পরবর্তী বাংলায় যেহারে সন্ত্রাসের আগুন ছড়িয়েছে পড়েছে, সেদিকটার কথা ভেবেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে খবর।

২ রা মে নির্বাচনের ফল প্রকাশের পর বাংলা দখলের স্বপ্ন অধরাই রয়েছে যায় বিজেপি শিবিরের। আবারও বাংলার ক্ষমতায় ফেরে তৃণমূল শিবির। আর তারপর থেকেই বাংলায় ছড়িয়ে পরে হিংসার আগুন। বিজেপি শিবিরের অভিযোগ, নির্বাচনে জয়ী হয়ে গেরুয়া শিবিরের কর্মী সমর্থকদের উপর তাণ্ডব চালাচ্ছে তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা। বিজেপি কর্মীদের মারধর করে, তাঁদের ঘর বাড়িও জ্বালিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

এই ঘটনায় বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে মোট ১৬ জন বিজেপি কর্মী প্রাণ হারান। রাজনৈতিক সংঘর্ষের ফলে বাংলার উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে আক্রান্ত সমর্থকদের পরিবারের সঙ্গে দেখা করতে দুদিনের বাংলা সফরে আসেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা।

বাংলায় যেভাবে ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসার আগুন জ্বলে উঠেছে, এই পরিস্থিতিতে বিজেপির বিধায়কদের নিরাপত্তার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে পরাজিত প্রার্থীদের নিরাপত্তা বাড়ানোর সিদ্ধান্তও নেওয়ার হয়েছে। তবে যদি কোন বিধায়ক এই নিরাপত্তা নিতে না চান, তাহলে তাঁকে জোর করা হবে না। তবে কেউই দ্বিমত করেনি বলেই জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button