টাইমলাইনভারত

সেবা আমাদের মন্ত্র, অনুমতি না পেলে গরিব-ধনীদের বিনামূল্যে ওষুধ দেবঃ বাবা রামদেব

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ পতঞ্জলি (Patanjali) দ্বারা আবিস্কৃত করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে সরকার। জমা দিতে বলেছে রিসার্চের সমস্ত কাগজপত্র। তবে রামদেব বাবা (Ramdev) জানিয়েছেন, যদি মন্ত্রালয়ের সম্মতি নাও মেলে, তাহলে তিনি তা বিনামূল্যে ধনী এবং গরিবদের মধ্যে বিলিয়ে দেবেন। রিপাবলিক ইন্ডিয়া নিউজ চ্যানেলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে তিনি একথা জানালেন।

বাবা রামদেব দাবী করেছেন, এটি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ যুক্ত রোগীর উপর প্রয়োগ করলে তাঁর ফল ভালো মিলছে। এই ওষুধ প্রয়োগে মৃতের সংখ্যা শূণ্য।

নিষেধাজ্ঞা জারী সরকারের
পতঞ্জলির এই ওষুধ প্রয়োগে সাময়িক বিরতি জারী করেছে আয়ুশ মন্ত্রলয়। ওষুধ সম্পর্কে আয়ুশ মন্ত্রালয় পতঞ্জলি সংস্থাকে জানিয়েছে, যতক্ষণ না পর্যন্ত এই ওষুধের পরীক্ষা আবারও করা হচ্ছে, ততক্ষণ পর্যন্ত এই ওষুধের ব্যবহার এবং সমস্ত বিজ্ঞাপন বন্ধ করতে হবে। কিন্তু এই অবস্থায় বাবা রামদেব এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, এই ওষুধ নিয়ে ব্যবসায় বাধাপ্রাপ্ত হলেও, তাহলে সমস্ত ওষুধ তিনি দরিদ্রদের মধ্যে দান করে দেবেন।

প্রথম আয়ুর্বেদিক ওষুধ
পতঞ্জলি সংস্থা দাবী করেছে, তাঁদের আবিস্কৃত এই ওষুধ বর্তমান সময়ে মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক হিসাবে প্রথম আয়ুর্বেদিক ওষুধ। পতঞ্জলি যোগপিঠ বাবা রামদেব এবং আচার্য বালকৃষ্ণ এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে করোনার ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ‘দিব্যা করোনিল ট্যাবলেট’ সহ তিনটি ওষুধ বাজারে প্রকাশ করেছেন। এই করোনার কিটে করোনিল ছাড়াও ইনহেলার ভ্যাটস রয়েছে। রামদেব বাবার মতানুসারে এই তিনটি ওষুধের মিলিত প্রভাবে করোনা ভাইরাসকে রোধ করা সম্ভব হবে।

Back to top button