fbpx
টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গভারত

স্বপ্নে বুলেট ট্রেনের ভাবনা আর বাস্তবে রেলের রক্ষণাবেক্ষণেই বরাদ্দ নেই, মোদিকে কটাক্ষ অধীরের

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ শনিবার রাতে বর্ধমান স্টেশনের মূল ভবনের একাংশ ভেঙে যে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল, তা নিয়ে মুখ খুললেন কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। কেন্দ্র সরকারের রেল বাজেটে রেলের রক্ষণাবেক্ষণের জন্য যা বরাদ্দ করেছে, তা একেবারেই যথেষ্ট নয়, দাবি প্রাক্তন রেল প্রতিমন্ত্রীর।

এই মুহুর্তে পুরোটাই লোকসানে চলছে রেল। রেলের পরিষেবা থেকে শুরু করে রক্ষণাবেক্ষণে সমস্ত কাজের জন্য যে টাকা বরাদ্দ হওয়া উচিত্, তার অনেক কম বরাদ্দ হয়েছে। এর জেরে রেলের গাফিলতি প্রকাশ্যে আসছে বারবার।

শনিবার রাতে ওই ঘটনার পর থেকে রবিবারেও আতঙ্কিত হয়ে রয়েছে মানুষ। আবারও কোনও অংশ যদি খসে পড়ে। যদিও  জেলা প্রশাসন ও রেলের কড়া নজদারিতে রাখা হয়েছে ওই দুর্ঘনাস্থল। যাতে ওই স্থলে কেউ না চলে যায়। বর্ধমান স্টেশনের দুর্ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২ জন আহত হয়েছে, যাঁদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ধ্বংসস্তূপের নীচে অনেকে আটকে থাকার আশঙ্কা করছে রেল।

বর্ধমান স্টেশনের একাংশ ভেঙে পড়ায় ঘটনায় মোদিকে তীব্র কটাক্ষ করেছেন বহরমপুরের সাংসদ। বলেছেন, বুলেট ট্রেনের স্বপ্ন দেখা হচ্ছে অথচ, রেলের রক্ষণাবেক্ষণ নিয়ে কোনও মাথাব্যাথা নেই কেন্দ্র সরকারের। রেলকে বেসরকারিকরণের কথা ভাবা হচ্ছে। বর্তমানে ১০০ টাকা আয় করতে ব্যয় করতে হচ্ছে তার থেকে বেশি। এইভাবে চলতে থাকলে আরও লোকসানে চলে যাবে রেল। যে ক্ষেত্রে নজর দেওয়া উচিত্ মোদি সরকারের, সেদিকে রীতিমতো উদাসীন বলে তীব্র আক্রমণ শাণালেন অধীর। দুর্ঘটনায় আহতদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে এই ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি করেছেন, যারা দোষী প্রমাণিত হবে, তাদের উপযুক্ত শাস্তি চান তিনি। প্রয়োজনে তিনি নিজে এ বিষয়ে রেলমন্ত্রী পিযূষ গোয়েলের সঙ্গে কথা বলবেন, এমনটাই জানিয়েছেন কংগ্রেস নেতা।

Back to top button
Close