টাইমলাইনভারত

নৃশংস! মানতে পারেনি মেয়ের প্রেম, হত্যা করে মেয়ের কাটা মুন্ডু হাতে নিয়ে রাস্তায় বেরোলেন বাবা

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ মেয়ের কাটা মুন্ডু হাতে নিয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছে বাবা। ভাবতেই গায়ে কাঁটা দিলেও, এমনই এক হাড়হিম করা ঘটনা ঘটল উত্তরপ্রদেশের (uttarpradesh) হারদয় জেলায়। সর্ভেশ কুমার নামে এক ব্যক্তি রাস্তা দিয়ে একটি কাটা মুন্ডু নিয়ে চলার সময় এক ব্যক্তি তাঁকে চিনতে পেরে পুলিশে খবর দেন।

পুলিশ জানিয়েছে, ‘এক ব্যক্তি তাঁর নিজের মেয়ের কাটা মুন্ডু নিয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়ার খবর পাই আমরা ফোন মারফত। তারপর ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ব্যক্তির কাছ থেকে সবকিছু শুনে তাঁকে থানায় নিয়ে হেফাজতে রাখা হয়’।

ঘটনাটি উত্তরপ্রদেশের হারদয় জেলার। ওই এলাকার রাস্তা দিয়ে সর্ভেশ কুমার নামে এক ব্যক্তি একটি কাটা মুন্ডু হাতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। এই অবস্থায় এক ব্যক্তি তাঁকে চিনতে পেরে থানায় খবর দেয়। ২ জন পুলিশ অফিসার সেখানে পৌঁছাতে তিনি পুলিশের কাছে সমস্ত ঘটনাটা জানান। পুলিশ সর্ভেশের সমস্ত বয়ান রেকর্ড করে তাঁকে থানায় নিয়ে যায়।

ঘটনার বিবরণে নির্ভয়ে সর্ভেশ কুমার জানান, তাঁর মেয়ের সঙ্গে এক ব্যক্তির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বাবা হয়ে মেয়ের এই প্রেমের সম্পর্ক কিছুতেই মেনে নিতে পারেনি সর্ভেশ। তাই মেয়েকে আটকাতে গিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে মেয়েকে হত্যা করে সে নিজেই। ধর থেকে মুন্ডু আলাদা করে দেহ ঘরে রেখেই মুন্ডু নিয়ে রাস্তায় বেরিয়েছিলেন। এই নৃশংস্য হত্যা কান্ডের জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোটা এলাকায়। অভিযুক্ত বাবাকে রাখা হয়েছে পুলিশি হেফাজতে।

Back to top button