টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

সব দেশকে পিছনে ফেলে অর্থনীতিতে দ্বিতীয় শক্তি হচ্ছে ভারত, সামনে শুধু চীন

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ভারতে (india) একদিকে গতবছর থেকেই অক্টোপাসের মত আষ্টেপৃষ্ঠে রয়েছে করোনা ভাইরাস, তারউপর করোনা দোসর হিসেবে মাথা চাড়া দিয়েছে ব্ল্যাক ফাঙ্গাস। এসবের মধ্যে দেশ মধ্যস্থ জারি হওয়া লকডাউনের মধ্যে কাজ হারিয়ে বেকার বহু মানুষ। যার ফলে তড়তড় করে নিচের দিকে নামছে দেশের অর্থনীতি (Economy)। কিন্তু এরই মধ্যে এক সুখবর শোনাল বিশ্বব্যাঙ্ক (World Bank)। ঘুরে দাঁড়াতে চলেছে দেশের অর্থনীতি।

বিশ্বব্যাঙ্ক সূত্রের খবর, চলতি অর্থবর্ষে ভারতের অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। অর্থনৈতিক বৃদ্ধি হতে চলেছে ৮.৩ শতাংশ। আর এই অর্থনীতিই দেশকে দ্বিতীয় স্থানে নিয়ে যেতে সক্ষম হবে। তবে ভারতের থেকে মাত্র ০.২ শতাংশের ব্যবধানে প্রথম স্থানে রয়েছে চীন (china)। তবে এপ্রিলে দেওয়া সমীক্ষা পরিমাণ ছিল ১০.১ শতাংশ, যা বর্তমান সমীক্ষার চেয়ে প্রায় ১.৭% বেশি।

বিশ্বব্যাঙ্ক জানিয়েছে, ভারতের পাশাপাশি ভূটান ও বাংলাদেশেরও ৫ শতাংশ করে অর্থনৈতিক বৃদ্ধি হতে চলেছে চলতি বছরে। তবে করোনা আবহে মুষড়ে পড়া গোটা বিশ্বের অর্থনীতিকে স্বাভাবিক অবস্থানে ফেরাতে এখনও ৮০ বছর সময় লাগবে বলে ধারণা বিশ্বব্যাঙ্কের। তবে একটু একটু করে হলেও ঘুরে দাঁড়াচ্ছে সারা বিশ্বের অর্থনীতি। যার মধ্যে চলতি বছর বৃদ্ধি পেতে পারে ৫.৬%। ২০২২ সালে কিছুটা কম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, যা প্রায় ৪.৩% এবং ২০২৩ সালে ৩.১% বৃদ্ধি পেতে পারে গোটা বিশ্বের অর্থনীতি।

তবে এদিন বিশ্বব্যাঙ্কের দেওয়া রিপোর্টে ভারতের ভূয়সী প্রশংসাও চোখে পড়ে। বিশ্বব্যাঙ্ক জানিয়েছে, উন্নত পরিকাঠামোয় বিনিয়োগ, সঠিক পরিকল্পনা, গ্রামীণ উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য পরিষেবায় উন্নতি- এইসকল বিষয়ই ভারতীয় অর্থনীতি বৃদ্ধির পথ প্রশস্ত করছে। যার ফলে এই সংকটের পরিস্থিতিতেও ঘুরে দাঁড়াচ্ছে ভারতের অর্থনীতি।

Related Articles

Back to top button