টাইমলাইনভারতঅন্যান্য

ক্রমশ সবুজ হচ্ছে ভারত! গত দু’বছরে দেশে বেড়েছে বনাঞ্চলের পরিমাণ

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে ক্রমবর্ধমান দূষণ এবং তাপমাত্রা বৃদ্ধির মাঝেই এবার সুখবর শোনালো ভারত! শেষ দু’বছরে দেশে উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়েছে সবুজের হার! স্বাভাবিকভাবে এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই খুশি হয়েছেন পরিবেশবিদরাও!

গত বৃহস্পতিবার প্রকাশিত হয়েছে ফরেস্ট সার্ভে রিপোর্ট ২০২১। এই রিপোর্ট প্রকাশ করেন পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী ভূপেন্দর যাদব। ফরেস্ট সার্ভে অফ ইন্ডিয়া (FSI) দ্বারা তৈরি “ইন্ডিয়া স্টেট অফ ফরেস্ট রিপোর্ট ২০২১”-এ দেশের সামগ্রিক বন ও বৃক্ষ সম্পদের মূল্যায়ন করা হয়েছে।

সেখানেই জানা গিয়েছে যে, গত দুই বছরে দেশের মোট বন ও বৃক্ষের আয়তন উল্লেখযোগ্যভাবে ২,২৬১ বর্গ কিমি বৃদ্ধি পেয়েছে। পাশাপাশি, ওই রিপোর্ট অনুযায়ী জানা গিয়েছে, মধ্যপ্রদেশে দেশের বৃহত্তম বনভূমি রয়েছে। এছাড়াও, অন্ধ্র প্রদেশে বনভূমির সর্বাধিক বৃদ্ধি (৬৪৭ বর্গ কিমি) দেখা গিয়েছে। ওই তালিকায় এরপরেই রয়েছে তেলেঙ্গানা (৬৩২ বর্গ কিমি) এবং ওড়িশা (৫৩৭ বর্গ কিমি)।

মোট ভৌগোলিক এলাকার শতাংশ হিসাবে বনভূমির পরিপ্রেক্ষিতে, শীর্ষ পাঁচটি রাজ্য হল মিজোরাম (৮৪.৫৩%), অরুণাচল প্রদেশ (৭৯.৩৩%), মেঘালয় (৭৬.০০%), মণিপুর (৭৪.৩৪%) এবং নাগাল্যান্ড (৭৩.৯০%)।

পাশাপাশি, ১৭ টি রাজ্য ও কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলের ভৌগোলিক অঞ্চলের ৩৩ শতাংশেরও বেশি বনভূমি রয়েছে। দেশের বনে মোট কার্বন মজুত রয়েছে আনুমানিক ৭,২০৪ মিলিয়ন টন, যা ৭৯.৪ মিলিয়ন বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও, দেশে মোট ম্যানগ্রোভ অরণ্য রয়েছে ৪৯৯২ বর্গ কিমি। যা গত দু’বছরে বৃদ্ধি পেয়েছে ১৭ বর্গ কিমি।

এই প্রসঙ্গে মন্ত্রী ভূপেন্দর যাদব জানিয়েছেন যে, দেশের মোট বন ও বৃক্ষ আচ্ছাদন রয়েছে ৮০.৯ মিলিয়ন হেক্টর যা দেশের ভৌগোলিক আয়তনের প্রায় ২৪.৬২ শতাংশ। ২০১৯ সালের মূল্যায়নের তুলনায়, দেশের মোট বন ও গাছের আচ্ছাদন বৃদ্ধি পেয়েছে ২২৬১ বর্গ কিমি। তিনি আরও জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে সরকারের লক্ষ্য কেবল বনাঞ্চল সংরক্ষণ করা নয়। বরং, বনগুলিকে গুণগতভাবে সমৃদ্ধ করার জন্যও কাজ করছে কেন্দ্র।

Related Articles

Back to top button