টাইমলাইনভারত

বড় সাফল্য DRDO-র, ১০০০ -এরও বেশি ইঞ্জিন প্রস্তুতের পথে ভারত

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ শত্রুর বিরুদ্ধে মোকাবিলা করার জন্য DRDO প্রতিনিয়তই ভারতীয় সেনার প্রয়োজনীয় নানান ধরণের আধুনিক এবং উন্নতমানের হাতিয়ার এবং টেকনোলজি প্রস্তুত করে চলেছে। ভারতের (india) ক্ষমতাবলকে আরও বাড়িয়ে তুলতে DRDO এক ক্ষমতা সম্পন্ন জেট ইঞ্জিন প্রস্তুতের কাজ শুরু করেছে। এই জেট ইঞ্জিন নির্মানের বিষয়ে DRDO অন্তরাষ্ট্রীয় স্তরে আলোচনা করছে। আগামী ২০৩৫ সালে এই জেট উৎপাদিত হবে। আমেরিকার ইঞ্জিন নির্মাণ সংস্থা Pratt & Whitney এই বিষয়ে আগ্রহ দেখিয়েছে।

কিছুদিন আগেই ফ্রান্সের এক আধিকর্তা ভারতে এসেছিলেন। এই ইঞ্জিনের বিষয়ে আলোচনায় অংশ নেয়। রাফাল ফাইটার জেটে এই প্রোফেন ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয়। ভারত এবং দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বরিষ্ঠ আধিকর্তা জানিয়েছেন, ভারতীয় আধিকারিক এবং রয়্যালস রয়েস কোম্পানির মধ্যে এই নতুন ইঞ্জিনের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই এই ইঞ্জিনের ডিজাইন করা হয়েছে।

TEDBF এবং MWF প্রথমে আমেরিকান JEF414 ইঞ্জিনের সাহায্যে চালনা করা হবে। প্রথমে ৯৮ কিলো থ্রাস (শক্তি)  উৎপাদন করবে। তবে পরবর্তীতে ২০৩৮ সাল থেকে ২০৪০ সালের মধ্যে ১১০ কিলো থ্রাস উৎপাদন করতে সক্ষম হবে।

MCMK2 প্রোগ্রামের জন্য বর্তমান ভারত এক স্থানীয় পরিস্থিতি তৈরি করার চেষ্টায় নিযুক্ত রয়েছে, যা পরবর্তীতে কোম্পনির সঙ্গে কথা বলে এই ইঞ্জিনের ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সক্ষম হতে পারে। ভারত আগামী সময়ে ৩ ফাইটার জেটের জন্য ১০০০ -এরও বেশি ইঞ্জিন প্রস্তুত করতে সক্ষম হবে। তবে এখন এটাই দেখার যে এই ইঞ্জিন প্রস্তুত করতে কোন অন্তরাষ্ট্রীয় সংস্থা এগিয়ে আসে।

Back to top button