টাইমলাইনভারতখেলাক্রিকেট

ওয়ান্ডারার্সে ইতিহাস গড়তে নামবে বিরাট সেনা, ৩০ বছর ধরে এখানে অপরাজেয় ভারত

বাংলা হান্ট ডেস্ক: নতুন বছরের শুরুতেই ইতিহাস গড়ার সুযোগ বিরাট বাহিনীর কাছে! সোমবার থেকে শুরু হতে যাওয়া দ্বিতীয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে ওই দেশের মাটিতে প্রথম টেস্ট সিরিজ জয়ের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামতে চলেছে ভারতীয় দল।

এর আগে সেঞ্চুরিয়নে “বক্সিং ডে টেস্ট”-এ দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিরাট ব্যবধানে হারিয়ে দেন কোহলিরা। তারপরেই দ্বিতীয় টেস্টে বিরাটদের গন্তব্যস্থল জোহানেসবার্গ, যা ইতিমধ্যেই দেশের বাইরে ভারতীয় টিমের “ঘর” হিসেবে পরিচিত!

এখানেই ২০১৮ সালে ভারতীয় দল বিশ্বের অন্যতম শ্রেষ্ঠ টেস্ট দল হিসেবে নিজেদেরকে প্রমাণ করে। যার রেশ গত চার বছর ধরে এখনও চলে আসছে টিমের মধ্যে। শুধু তাই নয়, বিদেশের মাটিতে ধারাবাহিকভাবে ভালো ফল করে আসছে বর্তমানের টেস্ট দল। যার ফলে খেলোয়াড়রাও চরম আত্মবিশ্বাসী হয়ে উঠেছেন। পাশাপাশি, প্রথম টেস্টটি জিতে এই আত্মবিশ্বাস আরও বহুগুণ বেড়ে গিয়েছে।

তবে, দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট দলে বহু পরিবর্তন লক্ষ্য করা গিয়েছে। প্রবীণ খেলোয়াড়দের বিদায়ের পর নতুন ভাবে সাজানো হয়েছে দলটিকে। তাই, ভারতের মতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড় সম্বলিত দলে টেস্ট সিরিজ জয়ের বেশ ভালো সুযোগ রয়েছে। যদিও, কাগিসো রাবাডা এবং লুঙ্গি এনগিডির মতো ফাস্ট বোলাররা যে কোনো মুহূর্তেই ভাঙন ধরিয়ে দিতে পারেন প্রতিপক্ষ দলে।

তবে, উইকেট-রক্ষক তথা অন্যতম ব্যাটসম্যান কুইন্টন ডি-কক হঠাৎ টেস্ট থেকে অবসর নেওয়ায় নিঃসন্দেহে দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য এটি একটি বড় ধাক্কা। ডি-ককের অনুপস্থিতিতে দুর্বল হয়ে গিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং লাইন-আপও।

অপরদিকে, ২৫ বছর বয়সী উইকেটরক্ষক এবং ব্যাটার রায়ান রিকলটন তাঁর দ্বিতীয় টেস্টে সুযোগ পেলেও জসপ্রীত বুমরাহ এবং মহাম্মদ শামির আগুন ঝরানো বোলিংয়ের সামনে তিনি কতটা সাবলীল হতে পারেন সেদিকেই তাকিয়ে রয়েছেন দর্শকমহল। এদিকে, ডুয়ান অলিভার, যিনি হ্যামস্ট্রিং ইনজুরির কারণে প্রথম টেস্ট থেকে বাদ পড়েছিলেন তিনি ভিয়ান মুল্ডারের স্থলাভিষিক্ত হবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

অপরদিকে, ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি প্রথম টেস্টে জিতলেও বোর্ড সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীর সাথে বিরোধের কারণে তিনি এখনও প্রশ্নের মুখে পড়ছেন। পাশাপাশি, দীর্ঘ দু’বছরেরও বেশি সময় ধরে তাঁর ব্যাট থেকে কোনো সেঞ্চুরি আসেনি। আপাতত তিনি তাঁর সেঞ্চুরির খরা কাটাতেই চাইবেন। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কোহলি প্রথম টেস্টের আগে এবং পরে এখনও পর্যন্ত মিডিয়ার মুখোমুখি হননি।

যদিও, এই বিষয়ে কোনরকম মন্তব্য করেননি ভারতের কোচ রাহুল দ্রাবিড়। তবে, দ্বিতীয় টেস্টটি জিততে যে একপ্রকার মরিয়া হয়েই মাঠে নামবে টিম ইন্ডিয়া তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। ভারতীয় দল গত ৩০ বছরে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে কোনো টেস্ট সিরিজ জিততে পারেনি। বিরাট কোহলির সামনে সেই ইতিহাস পাল্টানোরও সুবর্ণ সুযোগ রয়েছে।

একনজরে দেখে নিন কারা কারা রয়েছেন ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট টিমে:

ভারত: বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), কেএল রাহুল (সহ-অধিনায়ক), মায়াঙ্ক আগরওয়াল, চেতেশ্বর পূজারা, শ্রেয়াস আইয়ার, ঋষভ পান্ত (উইকেটরক্ষক), রবিচন্দ্রন অশ্বিন, শার্দুল ঠাকুর, জাসপ্রীত বুমরাহ, মহাম্মদ শামি, মহাম্মদ সিরাজ, আজিঙ্কা রাহানে, ঋদ্ধিমান সাহা (উইকেটরক্ষক), জয়ন্ত যাদব, প্রিয়াঙ্ক পাঞ্চাল, উমেশ যাদব, হনুমা বিহারী, ইশান্ত শর্মা।

দক্ষিণ আফ্রিকা: ডিন এলগার (অধিনায়ক), টেম্বা বাভুমা (সহ-অধিনায়ক), রায়ান রিকলটন (উইকেটরক্ষক), কাগিসো রাবাডা, সারেল এরভি, বেউরান হেন্ডরিক্স, জর্জ লিন্ডে, ভিয়ান মুল্ডার, কেশব মহারাজ, লুঙ্গি এনগিডি, এইডেন মার্করাম, কিগান পিটারসেন, রাসি ভ্যান ডের ডুসেন, কাইল ভার্ন, মার্কো জেনসেন, গ্লেন্টন স্টুরম্যান, প্রেনেলেন সুব্রিয়ান, সিসান্ডা মাগালা, ডুয়ান অলিভার।

Related Articles

Back to top button