টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

ধাওয়ান, গিলের ব্যাটে ভর করে জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ১০ উইকেটে অনায়াস জয় পেলো ভারত

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম ওডিআই ম্যাচে হেসেখেলে জয় পেল লোকেশ রাহুলের নেতৃত্বাধীন ভারত। খাতায়-কলমে ভারতের থেকে অনেক পিছিয়ে থাকা জিম্বাবোয়ে অবশ্য সিরিজ শুরুর আগে হুঙ্কার দিয়ে রেখেছিল যে তারা ভারতের কাজটা অনেক কঠিন করে তুলবে। কিন্তু বাস্তবে তেমন কিছুই দেখা গেল না। বোলারদের দুরন্ত বোলিং এবং ওপেনারদের দুর্দান্ত পার্টনারশিপে ভর করে ১০ উইকেটে ম্যাচ জিতলেন শিখর ধাওয়ানরা।

হারারে স্পোর্টস ক্লাবের মাঠে টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন লোকেশ রাহুল। প্রথম ১০ ওভারের মধ্যেই জিম্বাবোয়ের ৩ উইকেট তুলে নেন ভারতীয় পেসাররা। দলে প্রত্যাবর্তন করা দীপক চাহার কেমন খেলেন সেদিকে নজর রেখেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট প্রেমীরা। জিম্বাবোয়ের দুজন ওপেনার তাদিওয়ান্সে মারুমানি এবং ইনোসেন্ট কাইয়াকে ফিরিয়ে চাহার বুঝিয়ে দিয়েছেন যে তিনি চোট সারিয়ে আগের পরিচিত ছন্দই খুঁজে পেয়েছেন।

এরপর ভারতীয় বোলারদের দাপটে বোলিংয়ের সামনে জিম্বাবোয়ে অধিনায়ক রেজিস চাকাবাভা (৩৫), অলরাউন্ডার ব্র্যাডলি ইভান্স (৩৩*) এবং রিচার্ড ন্গারাভা (৩৪) ছাড়া কেউই কোনও রকম প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেননি। ভারতের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন দীপক চাহার, প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা ও অক্ষর প্যাটেল। ১টি উইকেট নেন মহম্মদ সিরাজ। উইকেট না পেলেও কৃপণ বোলিং করেন চায়নাম্যান স্পিনার কুলদীপ যাদব। ৪০.৩ ওভারে ১৮৯ রান তোলেন জিম্বাবোয়ে।

লোকেশ রাহুল দলে ফেরায় সকলেরই একটা কৌতুহল ছিল যে এবারও কি শিখর ধাওয়ান এর সাথে শুভমান গিল ওপেন করতে পারবেন! কিন্তু শেষ পর্যন্ত গেল ধাওয়ান-গিল জুটি ওপেন করতে নামেন এবং নেমে জিম্বাবোয়ে বোলারদের কোনো সুযোগ দেননি তারা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের প্রতিচ্ছবি এবারও জিম্বাবোয়ের বিরুদ্ধেও দেখা যায়। ধাওয়ান ধীর-স্থির ভঙ্গিতে ব্যাটিং করেন এবং আগ্রাসনের রাস্তা বেছে নেন গিল। ১১৩ বলে ৮১ রান করে অপরাজিত থাকেন শিখর। ৭২ বলে ১০টি চার ও ১টি ছক্কা সহযোগে ৮২ রান করেন গিল। ৩১ ওভারেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ভারত। বাকিরা ব্যাটিং করার সুযোগই পেলেন না।

Related Articles