fbpx
আন্তর্জাতিকটাইমলাইনভারত

ভুটানের যে এলাকাকে নিজের বলে দাবি করেছিল চীন, সেখানেই সড়ক বানাবে ভারত

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ভারতীয় (India) সীমান্তে সংঘর্ষ চালিয়ে চীন (China) এবার ভুটানের (Bhutan) দিকে এগোচ্ছে। ভুটানের পূর্বতম অঞ্চল সাকাতেংয়ের উপর নিজের দাবী জাহির করতে চাইছে চীন সরকার। কিন্তু ভুটান যে কড়া ঝটকা দেবে তা বুঝতে পারেনি জিনপিং সরকার। ভুটান চীনের অভিসন্ধি আঁচ করতে পেরে ভারতের পাশে দাঁড়াতে গুয়াহাটি থেকে তাওয়াংয়ের মধ্যে রাস্তা নির্মানে ব্রতী হয়েছে।

চীনের লক্ষ্যে বাঁধ সেধে ভুটানের ‘ইয়েতি অঞ্চলে’ (Yeti region) রাস্তা নির্মানের কাজে সম্মত হয়েছে ভারত। যার ফলে খুব সহজেই অরুণাচল প্রদেশের তাওয়াং-এ পৌঁছান যাবে এবং সেখান থেকে চীনের সীমানা খুব কাছেই। এই রাস্তা নির্মানের ফলে অতি দ্রুত এবং সহজেই ভারতীয় সেনারা চীনে প্রবশ করতে পারবে।

ভুটানের তাওয়াং অঞ্চল দখল করে ভারতের অরুণাচল প্রদেশের ৯০০০০ বর্গ কিমি অঞ্চল নিজের কুক্ষিগত করার লক্ষ্যে রয়েছে চীন। সেইসঙ্গে তাওয়াংকে দখল করে সমগ্র তিব্বতের উপর রাজ করতে চায় চীন।

রোডস অর্গানাইজেশনের মাধ্যমে ভারত ভুটানের মধ্যবর্তী এই রাস্তা নির্মানে দুই দেশই উপকৃত হবে। তাওয়াংয়ের কাছের লুমলাকে ভুটানের ট্র্যাশিংয়ের সাথে যুক্ত হলে, দুই দেশের সুরক্ষা রক্ষিত হবে। ওই অঞ্চলে অভয়রণ্য থাকায়, পর্যটন শিল্পও গড়ে উঠতে পারে।

ঐতিহ্যগত দিক থেকে এবং পৌরাণিক কাহিনী অনুসারে ভুটানবাসী ওই অঞ্চলকে ‘ইয়েতি’ বা ‘মিগোয়াই’ অঞ্চল হিসাবে বিবেচনা করে। এই অঞ্চল আবার বানজারা জনগোষ্ঠী জন্যও বিখ্যাত। পূর্বে ওই অঞ্চল নিয়ে চীন কোন সমস্যা সৃষ্টি না করলেও, ২০১৭ সালে ডোকলামের পরাজয় এবং ২০২০ সালের গালভান সংঘর্ষের পর এই সমস্যা নতুন করে শুরু করেছে।

Back to top button
Close