টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

নেই বিশ্রামের অবকাশ, T-20 বিশ্বকাপ শেষ হলেই নিউজিল্যান্ডে উড়ে যাবেন রোহিত শর্মারা

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: বছরের শেষে বিশ্বকাপ খেলতে অস্ট্রেলিয়া যাবে ভারতীয় দল। মাঝে আর তিনটি মাস বাকি রয়েছে। অক্টোবরের মাঝামাঝি থেকে শুরু হয়ে নভেম্বরে গিয়ে শেষ হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। আর আগে বেশ কয়েকটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলছে ভারত। সমীক্ষায় দেখা গেছে ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে চলতি বছরের সবচেয়ে বেশি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ প্র্যাকটিস পাচ্ছে ভারতীয় দল। কিন্তু বিশ্বকাপ শেষ হলেই ধকলের অবসান ঘটছে না।

বিশ্বকাপ শেষ হওয়া মাত্রই নিউজিল্যান্ড উড়ে যাবে ভারতীয় দল। সেখানে একটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ এবং ওয়ানডে সিরিজ খেলবে বিরাট কোহলিরা। এই কথা আজ সরকারিভাবে ঘোষণা করে জানিয়ে দিয়েছেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। ম্যাচ গুলি তারিখ এবং ভেন্যুও নির্ধারিত হয়ে গিয়েছে।

নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে ভারতীয় দল ১৮ থেকে ৩০ শে নভেম্বর অবধি নিউজিল্যান্ডের থেকে ৩টি টি-টোয়েন্টি এবং ৩টি ওডিআই ম্যাচ খেলবে। এই তিনটি টি-টোয়েন্টি অনুষ্ঠিত হবে ওয়েলিংটন, তাওরাঙ্গা এবং নেপিয়ারের মাঠে। তারপর অকল্যান্ড, হ্যামিল্টন এবং ক্রাইস্টচার্চে তিনটি ওডিআই ম্যাচ খেলবে ভারত। নভেম্বরে ঐ সিরিজ শেষ এরপর ডিসেম্বরের মাস্টি বাদ দিয়ে জানুয়ারিতে ফের ভারতে ফিরবে নিউজিল্যান্ড একটি সীমিত ওভারের সিরিজ খেলতে।

২০২১ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দগদগে ক্ষত এখনো তাজা ভারতীয়দের মনে। এইবারে সেই ক্ষতে প্রলেপ লাগাতে চায় রোহিত শর্মার ভারতীয় দল। প্রস্তুতিতে কোন খামতি রাখা হচ্ছে না। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর এই দেশের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের ৩-০ ফলে জয় পেয়েছে ভারত। তারপর ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং শ্রীলংকাকে দেশের মাটিতে ৩-০ ফলে হারিয়েছে তারা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের ২-০ তে পিছিয়ে পড়েও সিরিজে সমতা ফিরিয়েছিল ভারত ফাইনাল ম্যাচটি বৃষ্টির জন্য ভেস্তে যায়। এই মুহূর্তে আয়ারল্যান্ডের মাটিতে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে হার্দিক পান্ডিয়ারা। তারপর ইংল্যান্ডে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে তারা। জুলাই মাসেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতেও তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে ভারত।

Related Articles

Back to top button