টাইমলাইনটাকা পয়সাভারত

দেশের জন্য ৬০ হাজার কোটি টাকা দান, এশিয়ার সবথেকে ধনী ব্যক্তি গৌতম আদানির বড় ঘোষণা

বাংলা হান্ট ডেস্ক: বর্তমানে ভারত তথা বিশ্বের মধ্যে অন্যতম একজন ধনকুবের হলেন শিল্পপতি গৌতম আদানি। ইতিমধ্যেই তিনি এশিয়ার সবচেয়ে ধনী ব্যক্তি হিসেবে পরিগণিত হয়েছেন। এমনকি, তিনি বিশ্বের সেরা দশ ধনকুবেরদের তালিকাতেও জায়গা করে নিয়েছেন। এমতাবস্থায়, ২৪ জুন অর্থাৎ শুক্রবার তিনি ৬০ বছরে পদার্পন করলেন। সেই উপলক্ষ্যে এক বিরাট ঘোষণা করেছেন তিনি। জানা গিয়েছে, এবার নিজের সম্পত্তির একটি বড় অংশ দান করতে চলেছেন এই শিল্পপতি।

মূলত, ১৯৯১ সাল পর্যন্ত জাতীয় স্তরেও কার্যত অপরিচিত ছিলেন আদানি। কিন্তু, তারপরেই একের পর এক উত্তরণ করতে থাকেন তিনি। আর এভাবেই মাত্র ২০ বছরেই তিনি তাঁর ব্যবসা ছড়িয়ে দিয়েছেন দেশ তথা বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে।

সম্প্রতি আদানি গ্রুপের চেয়ারম্যান জানিয়েছেন যে, তিনি তাঁর সম্পদের ৭.৭ বিলিয়ন ডলার (যা ভারতীয় মূল্যে প্রায় ৬০ হাজার কোটি টাকা) সামাজিক কাজে দান করবেন। এমতাবস্থায়, তাঁর এই বিপুল অর্থ দানের ঘোষণা এখনও পর্যন্ত দেশে সবচেয়ে বড় দান গুলির মধ্যে অন্যতম একটি হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

আদানি মূলত, তাঁর জন্মদিন এবং বাবার ১০০ তম জন্মবার্ষিকীতে এই বিশাল পরিমান অনুদান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এই প্রসঙ্গে তিনি এক বিবৃতির মাধ্যমে জানিয়েছেন যে, অনুদানের এই অর্থ স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং দক্ষতা উন্নয়ন সম্পর্কিত কাজে ব্যবহার করা হবে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গৌতম আদানি দীর্ঘদিন ধরেই বিশ্বের শীর্ষ বিলিয়নেয়ারদের তালিকায় আধিপত্য বিস্তার করে চলেছেন। বর্তমানে তিনি বিশ্বের অষ্টম ধনী ব্যক্তি। ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার্স ইনডেক্স অনুসারে, এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত গৌতম আদানির মোট সম্পদের পরিমান দাঁড়িয়ে রয়েছে ৯২.৭ বিলিয়ন ডলারে।

এদিকে, বর্তমানে দেশের সবচেয়ে বড় দাতাদের প্রসঙ্গ উল্লেখ করলে এই ক্ষেত্রে প্রথম স্থানে উঠে আসে উইপ্রোর চেয়ারম্যান আজিম প্রেমজির নাম। একটি প্রতিবেদন অনুসারে জানা গিয়েছে যে, প্রেমজি ২০২১-এর অর্থবর্ষে ৯,৭১৩ কোটি টাকা দান করেছিলেন। এমনকি, বিগত কয়েক বছর ধরে, উইপ্রো প্রধান এই তালিকায় শীর্ষে রয়েছেন।

এর পাশাপাশি, গত তিন বছরে এই ক্ষেত্রে ভারতের অন্যান্য শিল্পপতিদের কথা বলতে গেলে জানাতে হয়, আজিম প্রেমজি ১৮,০৭০ কোটি টাকা, শিব নাদার ২,৮৮৪ কোটি টাকা, মুকেশ আম্বানি ১,৪৩৭ কোটি টাকা, কুমার মঙ্গলম বিড়লা ৭৩২ কোটি টাকা এবং নন্দন নিলেকানি ৫৪৬ কোটি টাকা দান করেছেন।

যদিও, আরও অনেক ভারতীয় শিল্পপতি সামাজিক কাজের জন্য অনুদান করেছেন। যাঁর মধ্যে অনিল আগরওয়াল তিন বছরে ৪৫৮ কোটি টাকা দান করেছেন। এছাড়াও, হিন্দুজা গ্রুপ ৩৫১ কোটি টাকা, বাজাজ গ্রুপ ৩৪১ কোটি টাকা এবং গৌতম আদানি সাম্প্রতিক ঘোষণার আগে ৩০২ কোটি টাকা দান করেছেন।

Related Articles

Back to top button