টাইমলাইনভারত

বড় সিদ্ধান্ত মোদি সরকারের; বিশ্বে প্রথম এই কৃতিত্ব অর্জন করতে চলেছে ভারতীয় রেল

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বিশ্বে চতুর্থ বৃহত্তম রেল (rail) পরিষেবা দেয় ভারতীয় রেল (indian railway)। আর এই পুরো রেল পরিষেবাটাকেই বৈদ্যুতিকরণ করে পৃথিবীর প্রথম গ্রিন রেল পরিষেবার পথে হাঁটার সিদ্ধান্ত নিল মোদি সরকার (modi government) । আগামী ১০ বছরের মধ্যে একমাত্র দেশ হিসাবে রেলের কার্বন নিঃসরণ শূন্য হয়ে যাবে।

মোদি সরকারের রেল মন্ত্রী পিযূষ গোয়েল এদিন টুইট করে জানিয়েছেন, ভারতীয় রেল ২০৩০ সালের মধ্যে নেট জিরো রেল হবে। ভারতীয় রেলের কার্বন নিঃসরণ নামিয়ে আনা হবে শূন্যে। রেলমন্ত্রী আরো বলেন, প্রতিবছর ৮০০ কোটি যাত্রী ও ১২০০ কোটি টন পণ্য পরিবাহী ভারতীয় রেল পুরোটাই হয়ে উঠবে ‘গ্রিন’.

কার্বন নিঃসরণ কমাতে ডিজেল ইঞ্জিনের ব্যাবহার সম্পূর্ণ বন্ধ করতে হবে দেশে। তার বদলে সব ট্রেনই চালাতে হবে  বিদ্যুতে। ২০১৪-তে ভারতীয় রেল কার্বন নিঃসরণ করেছিল ৬৮ লক্ষ ৪০ হাজার টন। এই নিঃসরণকেই শূন্যে নামাতে চাইছে মোদি সরকার।রেলমন্ত্রী জানিয়েছেন, ২০২৩ সালের মধ্যেই ভারতীয় রেল পুরোপুরি ইলেকট্রিক নির্ভর হয়ে উঠবে।

প্রসঙ্গত, ভারতীয় রেলকে কার্বন নিঃসরণ মুক্ত করবার জন্য আগেই কয়লা ও ডিজেল নির্ভরতা কমানোর কথা বলেছিল মোদি সরকার। সেই পথে হেঁটেই যে এই লক্ষ্যে এগোনো হচ্ছে তা স্পষ্ট করে দিলেন রেল মন্ত্রী পীযূষ গোয়েল।  রেল সূত্রে খবর, সম্পূর্ণ ভাবে বিদ্যুৎ চালিত হলে গতিও বাড়বে ভারতীয় রেলে। ১০ থেকে ১৫ শতাংশ দ্রুততায় ছুটবে রেল বলা হচ্ছে এমনটাই।

https://twitter.com/PiyushGoyal/status/1298634732264071170?s=19

পাশাপাশি,  গত কয়েক মাসে বেশ কয়েকটি নতুন প্রোজেক্ট হাতে নিয়েছে রেল। যার ফলে ভারতীয় রেল আরো আধুনিক হয়ে উঠবে। বাড়বে যাত্রী স্বাচ্ছন্দ্যও।

Related Articles

Back to top button