আন্তর্জাতিকটাইমলাইন

ভারতের বড় কূটনৈতিক জয়! রাফালকে কাউন্টার করার টেকনিক পাকিস্তানকে দেবে না চীন

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ ফ্রান্সের রাফাল যুদ্ধ বিমান ভারতের (india) পর থেকেই পাকিস্তানের (pakistan) ভয় সর্বসমক্ষে চলে এসেছে। রাফাল বিমান নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকা পাকিস্তান এবার পরম মিত্র চীনের থেকে বিমান ধার চেয়ে বসল। কিন্তু চীনও ধার দেবেনা বলে জানিয়ে দিলো। এরপরেও পাকিস্তান চীনের কাছে আপগ্রেডেড র‍্যাডার আর এয়ারক্র্যাফটের দাবি করে বসেছে। আর এবারও চীন পাকিস্তানকে কিছুই দেবেনা বলে জানিয়ে দিয়েছে।

পাকিস্তানের সেনা প্রধান জেনারেল কমর জাভেদ বাজওয়া আর প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান রাফালকে কাউন্টার করার জন্য চীনের থেকে উন্নত র‍্যাডার প্রণালী আর আধুনিক এয়ারক্র্যাফট এর দাবি করেছে। এর সাথে সাথে পাকিস্তানকে দেওয়া JF-17 থান্ডার ফাইটার জেটকে আপগ্রেড করার দাবি করেছে। কিন্তু চীন তাঁদের পরম মিত্র পাকিস্তানের এই দাবিও পূরণ করবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে। পাকিস্তানের এই দাবি পূরণ না করার পিছনে চীনের কিছু কারণ আছে।

প্রথম কারণ হল- চীন ভাবছে যে, পাকিস্তানের বেহাল আর্থিক অবস্থার কারণে তাঁরা ঋণ শোধ করতে অসমর্থ। আর গোটা বিশ্বে চলা আর্থিক মন্দার মধ্যে পাকিস্তানকে ধারে হাতিয়ার বিক্রি করা কোনদিনও লাভের ব্যাবসা হতে পারেনা। এছাড়াও চীনের তরফ থেকে কাশ্মীরে জঙ্গিদের কাছ থেকে চীনের হাতিয়ার পাওয়ার পর জেনারেল বাজওয়া আর পাক প্রধানমন্ত্রীকে ভালো মন্দ শুনিয়ে দিয়েছে।

দ্বিতীয় কারণ হল- গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুযায়ী, চীন বলেছে যে, যেই হাতিয়ার পাক সেনাদের দেওয়া হয়, সেটা জঙ্গিদের হাতে কি করে পৌঁছাচ্ছে? চীনের এখন একটাই আশঙ্কা হল, তাঁদের হাতিয়ার জঙ্গিদের কাছে পৌঁছালে আন্তর্জাতিক মঞ্চে তাঁদের নাম খারাপ হবে। এছাড়াও এটা বলা হবে যে, চীন জঙ্গিদের মদত করছে। কিন্তু চীনের সবথেকে বড় সমস্যা হল, তাঁরা পাকিস্তানে মোটা বিনিয়োগ করে ফেলেছে।

তৃতীয় কারণ হল- চীন একাই পাকিস্তান ইকোনমিক করিডোরে ৪৬ বিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ করেছে। তাঁদের এই প্রোজেক্টে লাগাতার দেরি হচ্ছে। এছাড়াও ভারত চীনের সামগ্রীর জন্য একটি বড়সড় বাজার। আর এই কারণে চীন ভারতকে নজরান্দাজ করতে পারবেনা। চীনের শিঞ্জিং প্রান্তে উইঘুর মুসলিমদের পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন গুলো সমর্থন করে যাচ্ছে। আর সেই কারণে চীন পাকিস্তানের উপর ক্ষুব্ধ।

Leave a Reply

Close
Close