টাইমলাইনরাজনীতি

গণতন্ত্রের হত্যা করেছিলেন ইন্দিরা গান্ধী! বললেন NCP নেতা তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী জিতেন্দ্র আওহাদ

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী তথা রাষ্ট্রবাদী কংগ্রেস পার্টির (NCP) নেতা জিতেন্দ্র আওহাদ (Jitendra Awhad) প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীকে (Indira Gandhi) আক্রমণ করলেন। এছাড়াও তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহয়ের (Amit Shah) উপরেও আক্রমণ করেন। উনি বলেন, ইন্দিরা গান্ধী গণতন্ত্রের হত্যা করার চেষ্টা করেছিলে। আর ওনার এই অগণতান্ত্রিক নীতির কারণেই জেপি আন্দোলন হয়।

মহারাষ্ট্রের ভিডে আয়োজিত সাংবিধানিক রক্ষা মহাসভায় বক্তব্য দেওয়ার সময় মন্ত্রী বলেন, ‘ইন্দিরা গান্ধীও গণতন্ত্রের হত্যা করার চেষ্টা করেছিল। কেউ ওনার বিরুদ্ধে বলার সাহস দেখাত না। এরপর আহমেদাবাদ আর পাটনায় ওনার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু হয় আর জেপি আন্দোলনের সূচনা সেখান থেকেই হয়। আর এই কারণেই ইন্দিরা গান্ধী হেরে যান। মহারাষ্ট্র আর দেশ ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি করবে।”

এই অনুষ্ঠানে বিজি কোল পাতিল, তিস্তা সীতলবাড়, মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের সদস্য মৌলানা আবু তালিব রহমানি আর জেএনইউ এর ছাত্র দীপশিখা উপস্থিত ছিলেন। মন্ত্রী জিতেন্দ্র দেশে হিটলারের শাসনের মতো পরিস্থিতি তৈরি করার জন্য প্রধানমন্ত্রী মোদী আর অমিত শাহ এর কড়া সমালোচনা করেন। ইন্দিরা গান্ধীর কথা উল্লেখ করে বলেন, ছাত্রদের আরও একটি আন্দোলন দেশকে আরও একটি স্বাধীনতা দেবে।

এর আগে উনি মহারাষ্ট্রের থানেতে একটি র‍্যালিকে সম্বোধিত করার সময় বিতর্কিত বয়ান দিয়েছিলেন। উনি রাষ্ট্রীয় নাগরিকপঞ্জীর বিরোধিতা করে বলেছিলেন, দিল্লীতে যারা বসে আছেন তাঁদের জিজ্ঞাসা করছি, তাঁরা কি আমার কাছেও দেশবাসী হওয়ার প্রমাণ চাইবে? মোদী-শাহ এর নাম না নিয়েই উনি বলেন, যখন তোমাদের পূর্বপুরুষ ইংরেজদের পিছনে ঘুরত, তখন আমাদের পূর্বপুরুষেরা ফাঁসির দড়িতে চুমু দিয়ে ইনক্লাব জিন্দাবাদের স্লোগান দিত।

Back to top button