fbpx
টাইমলাইনভারত

ভিডিওঃ ধর্ষণে অভিযুক্তকে আদালতে দেখেই বেধড়ক মার দিলো আইনজিবীরা

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ তেলেঙ্গানায় মহিলা পশু চিকিৎসকের সাথে গণধর্ষণ আর হত্যার পর অভিযুক্তদের এনকাউন্টার (Hyderabad Encounter)  করে খতম করে পুলিশ। দেশে মহিলাদের বিরুদ্ধে বর্ধিত অপরাধের কারণে গোটা দেশে এখন ক্ষোভের মহল। মানুষ রাস্তায় বেরিয়ে ধর্ষণ আর ধর্ষকদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করছে। আর এই ঘটনার পর মধ্যপ্রদেশ থেকে আরেকটি খবর আসছে। মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর আদালতে শনিবার নাবালিকাকে ধর্ষণ করায় অভিযুক্ত ব্যাক্তিকে শুনানির জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। আর অভিযুক্তকে আদালত চত্বরে দেখে আইনজীবীরা তাঁকে ভাগিয়ে ভাগিয়ে পেটায়। পুলিশ কোনরকম ভাবে আইনজীবীদের হাত থেকে ধর্ষণের অভিযুক্তকে বাঁচিয়ে আদালত পরিসর থেকে নিয়ে যায়।

সম্ভবত ইন্দোর আদালত পরিসরে এই ঘটনা তখন ঘটেছিল যখন পুলিশ নাবালিকার ধর্ষণকারীকে শুনানির পর আদালত থেকে জেলে নিয়ে যাচ্ছিল। পুলিশকর্মীরা অভিযুক্তর মুখ ঢেকে বাইরে নিয়ে যাচ্ছিল। আর সেই সময় একজন আইনজীবী অভিযুক্তকে ঘুসি মারার চেষ্টা করে। এরপর পিছন থেকে আরও কিছু আইনজীবী এসে অভিযুক্তের ঢোলাই শুরু করে। এই দেখে পুলিশকর্মীরা আনন-ফানন থেকে বের করে অভিযুক্তকে গেটের বাইরে নিয়ে গিয়ে পুলিশের গাড়িতে বসায়। এই ঘটনার পর প্রচুর সংখ্যক পুলিশকর্মী জড় হয়ে অভিযুক্তকে সেখান থেকে বের করে নিয়ে যায়।

ইন্দোর কোর্ট চত্বরে ধর্ষণে অভিযুক্তকে আইনজীবীদের মারধরের ঘটনা আসলে দেশ জুড়ে চলা ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের প্রভাব। একদিন আগে তেলেঙ্গানার মহিলা ডাক্তারের সাথে গণ ধর্ষণ আর তাঁকে জ্বালিয়ে মেরে ফেলা চার অভিযুক্তকে পুলিশ এনকাউন্টারে খতক করেছে। পুলিশের এই কাজে দেশ জুড়ে হায়দ্রাবাদ পুলিশের প্রশংসা হচ্ছে। আবার কিছু মানুষ এবং রাজনৈতিক দলের নেতা নেত্রীরা এই ঘটনার বিরোধিতায় সরব হয়েছেন।

Back to top button
Close