টাইমলাইনবিনোদন

বাহুবলি সফলতা পাওয়ার পরেও প্রভাস এর মা তাকে শুভেচ্ছা জানায়নি

বাংলা হান্ট ডেস্ক: দক্ষিণী ছবির সুপারস্টার প্রভাসের ফ্যানবেস যে বিরাট এটা অস্বীকার করা যায় না। আপাতত তিনি তাঁর  মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘সাহো’ -র সাফল্য উপভোগ করছেন। সাম্প্রতিক এক সাক্ষাত্কারে, সুপারস্টারকে জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে তাঁর বাবা-মা বাহুবলির সাফল্যে কীভাবে প্রতিক্রিয়া দিয়েছিলেন, তাঁর উত্তরে তিনি সবথেকে মিষ্টি একটি জবাব দেন। 

 

“তিনি বলেছিলেন এটি তোমার মাথায় যেতে দেবে না, শান্ত থাকো, এই সাফল্যকে নিজের মাথায় যেতে দিও না”, প্রভাস তাঁর মায়ের জবাবের সম্পর্কে জানান। তাছাড়া তিনি আরও যোগ করেন যে তাঁর মা কখনই চায়নি প্রভাসকে ছবিতে অভিনয় করতে বরং চেয়েছিলেন প্রভাস যাতে একটি স্থায়ী কাজ করেন। তিনি চেয়েছিলেন যে প্রভাস তাঁর জন্য একটি বাড়ি কিনে আনন্দের সাথে জীবন কাটাক। তবে প্রভাস সেই পথে কোনোদিনও যেতে চায়নি তাই প্রভাসের মায়ের দেখা সেই স্বপ্ন টি কোনো দিনও বাস্তবে পরিণতি পায়নি।

তাঁর প্রথম দিনগুলিতে, একটি সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য তিনি ভেবেছিলেন একটি নির্দিষ্ট স্থায়ী কোনও ব্যাবসা শুরু করার। প্রথমে রেস্তোঁরা শুরু করার কথা ভেবেছিলেন। তখন প্রভাসের বয়স 19 বছর পরে যখন তিনি 22 বছর বয়সে পা দেন, তিনি অভিনয় জগতে ঢুকে যান এবং তারপরে বাহুবলী তে অভিনয় করেন তাই সেই পরিকল্পনাটিও কেবল স্বপ্ন থেকে যায়। বাহুবলী তাঁর জীবনটিকে সম্পূর্ণ ভাবে বদলে দেয়। 

 

বাহুবলীতে অভিনয়ের জন্য প্রভাস অনেক প্রশংসা কুড়িয়েছেন এবং তাঁর ভক্তরা তাঁর অভিনয় দেখে পাগল হয়ে গিয়েছিল। বাহুবলীর জন্যই তিনি আজ বিশ্বব্যাপী এক বিশাল বহুমুখী অভিনেতা যার বিশাল ফ্যান-বেস রয়েছে।

 

 প্রভাসকে শেষবার সাওহো ছবিতে দেখা গিয়েছিল এবং তারপরে দেখা যাবে ‘জিল’ খ্যাত রাধা কৃষ্ণ কুমারের পরিচালনায়।  সিনেমার শিরোনাম ‘আমোর’ এবং এই ছবিতে প্রভাসের পাশাপাশি দেখা যাবে পূজা হেগডেকে।

Leave a Reply

Close
Close