টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

ক্যারিবিয়ান ভূমে ইতিহাস লিখলো আইরিশ বাহিনী, হতাশা অব্যাহত পোলার্ডদের

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে হতশ্রী পারফরম্যান্স করেছিল ২০১৬ টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বিজয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সুপার টুয়েলভ থেকেই ছিটকে যেতে হয়েছিল সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটের নায়কদের। এবার পরিস্থিতি হলো আরও খারাপ। এবার নিজেদের দেশের মাটিতে খাতায় কলমে দুর্বল আইরিশদের কাছে ৫০ ওভারের ফরম্যাটে হার মানতে হলো তাদের। সেক্ষেত্রে অভিজ্ঞ তারকাদের দলের বাইরে রাখার সিদ্ধান্তও প্রশ্নের মুখে দাঁড়াল। একদিনের সিরিজে পোলার্ডদের হারিয়ে নজির তৈরি করেছে আয়ারল্যান্ড।

এর আগে পাকিস্তানের মাটিতে টি টোয়েন্টি সিরিজে পর্যদুস্ত হয়ে ফিরতে হয়েছে ক্যারিবিয়ানদের। আইরিশদের বিরুদ্ধে কিংস্টনে তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজের প্রথম ম্যাচে ক্যারিবিয়ানরা জেতে ২৪ রানে। কিন্তু পরের দুটি একদিনের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়ে সিরিজ পকেটে পুরে ফেলেছে আয়ারল্যান্ড। জিম্বাবোয়ে বা আফগানিস্তানের মতো দেশগুলিকে বাদ রাখলে টেস্ট খেলিয়ে বড় দেশগুলির বিরুদ্ধে যে কোনও ফরম্যাটে এটিই আয়ারল্যান্ডের প্রথম সিরিজ জয়।

শেষ ম্যাচে টসে হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজকে প্রথমে ব্যাট করতে পাঠান আয়ারল্যান্ডের অধিনায়ক পল স্টার্লিং। পুরো ৫০ ওভার খেলতে ব্যর্থ হয় তারা। মাত্র ২১২ রানেই গুটিয়ে যায় পোলার্ডরা। ওপেনার সাই হোপ লড়াই করে ৫৩ রান করেন। ওপেনিং জুটিতে ৭২ রান উঠলেও মিডল অর্ডার সম্পূর্ন ব্যর্থ হয়ে যায়। জেসন হোল্ডারের ৪৪, আকিল হোসেনের ২৩ রানের সৌজন্যে ২০০ রানের গন্ডি পেরোতে সক্ষম হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অ্যান্ডি ম্যাকব্রউন ২৮ রানে ৪ এবং ক্রেগ ইয়ং তিনটি উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে শুরুতেই অভিজ্ঞ উইলিয়াম পর্টারফিল্ডের উইকেট হারায় আইরিশরা। কিন্তু অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইনের ৫৯ ও হ্যারি টেক্টরের অর্ধশতরানের দৌলতে সহজেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আয়ারল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে আকিল হোসেন ও রস্টন চেজ ৩টি করে উইকেট দখল করেন। ম্যাচ এবং সিরিজের সেরা ক্রিকেটার হয়েছেন ম্যাকব্রাইন। সিরিজে ব্যাট হাতে মোট ১২৮ রান করার পাশাপাশি বল হাতে ১০টি উইকেটও নেন তিনি।

Back to top button