টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

পাঠান ভাতৃদ্বয়ের দাপুটে ব্যাটিংয়ে জ্যাক ক্যালিসের ওয়ার্ল্ড জায়ান্টসদের হারালো ইন্ডিয়ান মহারাজাস

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: গতকাল অর্থাৎ ৪ঠা সেপ্টেম্বর শুক্রবার, লেজেন্ডস লিগ ক্রিকেটের দ্বিতীয় মরশুম শুরুর প্রাক্কালে ইডেন গার্ডেন্সে একটি বেনিফিট ম্যাচ আয়োজিত হয়েছিল। এই ম্যাচে ওয়ার্ল্ড জায়ান্টসদের পরাজিত করে ইন্ডিয়ান মহারাজারা জয় পায় এবং দর্শকরা একটি রোমাঞ্চকর টি-টোয়েন্টি ম্যাচের মজা উপভোগ করে। ম্যাচে হরভজন সিংয়ের নেতৃত্বে মহারাজারা রান তাড়া করে এবং ছয় উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয়। তন্ময় শ্রীবাস্তব এবং ইউসুফ পাঠান মহারাজাদের হয়ে অর্ধশতরান করেন এবং মিডিয়াম পেসার পঙ্কজ সিং ৫ উইকেট নেন।

এই ম্যাচের থেকে আয় হওয়া যাবতীয় পয়সা ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপনের একটি অংশ হিসাবে কপিল দেবের খুশি ফাউন্ডেশনের হাতে উঠবে। তার সংস্থাটি কন্যাশিশুদের যথাযত শিক্ষার দাবিকে সমর্থন করে এবং সেই উদ্দেশ্যে কাজ করে। প্রাক্তন ভারতীয় অধিনায়ক এবং বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি নিজে এই ম্যাচে অংশ নিতে পারেননি। ম্যাচ শেষে তিনিই বিজয়ী অধিনায়ক হরভজন সিংয়ের হাতে ট্রফি তুলে দিলে। এরপর ম্যাচ কমিশনার এবং প্রাক্তন ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী পঙ্কজ সিংকে ম্যাচের সেরার ট্রফি হাতে তুলে দেন।

ম্যাচ শেষে জয়ী অধিনায়ক হরভজন সিং বলেছেন, “ইডেন গার্ডেন্সে ম্যাচ খেলতে পারাটা বিশেষ ব্যাপার ছিল। এতদিন পর মাঠে নামছি তাই কিছুটা চিন্তিত ছিলাম। তবে শেষ অবধি টস বাদে সবকিছুও ঠিকঠাক হয়েছে। আমি সকল কিংবদন্তিদের খেলতে দেখে খুব মজা পেয়েছি।” প্রীতি ম্যাচ হলেও দুই দল হাড্ডাহাড্ডি লড়াই উপহার দিয়েছে।

যদিও ম্যাচ হারলেও টসে জিতেছিলেন ওয়ার্ল্ড জায়ান্টসদের অধিনায়ক দক্ষিণ আফ্রিকান তারকা অল রাউন্ডার জ্যাক ক্যালিস। টস জিতে তিনি ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন এবং তার দলের দুই ওপেনার আয়ারল্যান্ডের প্রাক্তন ক্রিকেটার কেভিন ও’ব্রায়েন এবং জিম্বাবুয়ের মাসাকাদজা দুর্দান্ত ব্যাটিং করে পাওয়ার প্লেতেই ৫০ রান তুলে দেন। তাদের ওপেনিং পার্টনারশিপ এর উপর ভর করে কুড়ি ওভার শেষে ১৭০ রান তোলে ওয়ার্ল্ড জায়ান্টস।

Irfan Pathan,Yusuf Pathan,Harbhajan Singh,Kevin O'Brien,Jack Kallis,Legends League,Indian Maharajas,World Giants

রান তাড়া করতে নেমে প্রথম ওভারেই বীরেন্দ্র সেওবাগের উইকেটসহ দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে ফেলে ইন্ডিয়ান মহারাজারা। কিন্তু এরপর হাল ধরেন তন্ময় শ্রীবাস্তব এবং তারকা মারকুটে প্রাক্তন ভারতীয় ব্যাটার ইউসুফ পাঠান। দুজনেই দলের হয়ে অর্ধশত রান করেন। তন্ময় আউট হলে তার জায়গা নেন ইরফান পাঠান এবং পরপর তিনটি ছক্কা মেরে আট বল বাকি থাকতে ম্যাচ শেষ করে দেন তিনি। ইউসুফ অপরাজিত থাকেন ৩৫ বলে ৫০ রান করে এবং তার ভাই ইরফান অপরাজিত থাকেন ৯ বলে ২০ রানের একটি ইনিংস খেলে।

Related Articles