fbpx
টাইমলাইনভারত

পাকিস্তানে অত্যাচারিত, লাঞ্ছিত, হিন্দুদের ওপর মোদির সহানুভূতি দেখানোয় ক্ষুব্ধ কেজরিওয়াল!

 

বাংলা হান্ট ডেস্ক : নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন রাজনীতির ঘেরাটোপে এখন এক নতুন তুরুপের তাস হয়েছে। সকলেই এ নিয়ে বক্তব্য প্রকাশ করতে মরিয়া। কিন্তু যে 370 ধারা রাজনীতিতে একসময় প্রধান বিবেচ্য বিষয় ছিল তাকে টপকে এখন নাগরিকত্ব আইন প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দলের কাছে এক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। ও ভোটের রাসায়নিক পরিবর্তন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, পাকিস্তানের হিন্দুদের কথা ভাবার আগে কেন্দ্রীয় সরকার বরং দেশের জন্য কিছু করুক। একইসঙ্গে বিভিন্ন রাজ্যের বিধানসভায় যেভাবে ওই আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ হয়েছে, তাতেও আপত্তির কথা জানান ওই আপ নেতা। এরপর তিনি একাধিক প্রশ্নবাণে বিদ্ধ হন তিনি তার উত্তরে জানান।

 

কেরলের মতো দিল্লি বিধানসভাতেও কি নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রস্তাব পাশ করানো হবে? তিনি বলেন, “বিধানসভায় প্রস্তাব হল কি না হল তাতে কিছু যায় আসে না। পুরো দেশকেই ওই আইন বাতিল করতে হবে। সংসদে আইন বাতিল করতে হবে।” পরে তিনি প্রশ্ন করেন, “আমাদের বিধানসভায় যদি প্রস্তাব পাশ করানো হয়, তা হলে কি আইন বাতিল হয়ে যাবে?” কিন্তু রাজনীতির ল্যাবরেটরীতে এমন ধরনের প্রসঙ্গ বহুবার উঠে এসেছে উত্থাপিত হয়েছে কিন্তু তা ছিল চিরপথের সঙ্গী কোন সময় হয়নি।

তাঁর কথায়, “পাকিস্তানের হিন্দুদের প্রতি সরকার এত ভালবাসা দেখাচ্ছে, কিন্তু ভারতের হিন্দুদের প্রতি দেখাচ্ছে না কেন? অর্থনীতির অবস্থা খারাপ, মানুষের বাসস্থান নেই, চাকরি নেই, এমন সময় সরকার ভাবছে পাকিস্তানের দু’কোটি হিন্দুকে নাগরিকত্ব দেবে। আগে নিজের দেশের সমস্যা সমাধানে মনোযোগ দেওয়া উচিত।”

Back to top button
Close
Close