টাইমলাইনবিনোদন

টাকা দেখেই গলে জল, নোরা সরে আসলেও প্রতারক চন্দ্রশেখরকে বিয়ে করতে চেয়েছিলেন জ‍্যাকলিন

বাংলাহান্ট ডেস্ক: প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের (Sukesh Chandrasekhar) প্রতারণার জাল ক্রমেই বিছিয়ে পড়ছে বলিউডে। প্রথমে জ‍্যাকলিন ফার্নান্ডেজ (Jacqueline Fernandez), আর এখন নোরা ফতেহি (Nora Fatehi), দুই অভিনেত্রীই চন্দ্রশেখরের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার অভিযোগে পড়েছেন জেরার মুখে। সম্প্রতি দিল্লি পুলিসের ইকোনমিক অফেন্স উইং সমন পাঠিয়েছিল নোরাকে। হাজিরাও দিয়েছিলেন তিনি। টানা ছয় ঘন্টা ধরে জেরা করা হয় তাঁকে।

আদ্যোপান্ত কালো পোশাকে ঢেকে এদিন হাজিরা দেন অভিনেত্রী। মাথায় হুডি, চোখে সানগ্লাস, মুখে মাস্ক পরে চেনাই যাচ্ছিল না নোরাকে। বরাবর খোলামেলা পোশাকেই সকলে দেখতে অভ্যস্ত তাঁকে। কিন্তু সমন পেয়ে আদ্যোপান্ত ভোল বদলে এসেছিলেন নোরা। ছয় ঘন্টা ধরে জেরা করা হয় তাঁকে।


সূত্রের খবর, তদন্তকারীদের অভিনেত্রী জানিয়েছেন, তিনি সামনাসামনি কখনোই সুকেশ চন্দ্রশেখরকে দেখেননি। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমেই যোগাযোগ ছিল তাঁদের। জানা যাচ্ছে, নোরা নাকি তদন্তকারীদের কাছে দাবি করেছেন, তিনি ষড়যন্ত্রকারী নন বরং ষড়যন্ত্রের স্বীকার। সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে চ‍্যাটের স্ক্রিনশটও নাকি দেখিয়েছেন নোরা।

অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, চন্দ্রশেখরের আয়োজিত একটি চ‍্যারিটি ইভেন্টে হাজিরার জন‍্য নাকি বিএমডব্লিউ ৫ সিরিজ গাড়ি দাবি করেছিলেন তিনি। কিন্তু নোরা বেমালুম অস্বীকার করে গিয়েছেন এই অভিযোগ। তাঁর দাবি, ভালবাসার উপহার হিসাবে গাড়িটি পেয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি ওই ইভেন্টে যাওয়ার জন‍্য লীনা পল নামে এক মহিলা নোরার সমস্ত খরচ বহন করেছিলেন। তিনি নাকি একটি নামী ব্র‍্যান্ডের ব‍্যাগ এবং আইফোনও উপহার দিয়েছিলেন অভিনেত্রীকে।


তদন্তকারীরা জানান, প্রথমে নোরার উপরেই নিশানা করেছিলেন চন্দ্রশেখর। কিন্তু তিনি বিশেষ পাত্তা না দেওয়ায় জ‍্যাকলিনকে ফাঁদে ফেলেন সুকেশ। টাকা দেখে আর বহুমূল‍্য উপহার পেয়ে গলে যান জ‍্যাকলিন। এমনকি তিনি নাকি বিয়েও করার কথা ভাবছিলেন প্রতারককে। সবটা জেনেও সম্পর্ক বজায় রেখেছিলেন জ‍্যাকলিন। কিন্তু কিছু একটা আঁচ করে সরে এসেছিলেন নোরা। তাই তিনি বেঁচে গেলেও জ‍্যাকলিনের কপালে বিপদের খাঁড়া ঝুলছে।

Related Articles