টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচনরাজনীতি

শীতলকুচির ঘটনার ২৪ ঘণ্টা পর ট্যুইট রাজ্যপালের, নাম না করেই মমতাকে আক্রমণ ধনকড়ের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ ট্যুইট করে শীতলকুচির ঘটনায় শোকপ্রকাশ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর রবিবার দুপুরে ট্যুইট করলেন রাজ্যপাল। ট্যুইটের মাধ্যমে নাম না করেই বিঁধলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিকে (mamata banerjee)।

ট্যুইটে রাজ্যপাল লেখেন, ‘অশান্তি বন্ধ করতে সকলের এগিয়ে আসা উচিত। গণতন্ত্রে হিংসার কোন জায়গা নেই। হিংসা ত্যাগ করা উচিত সকলের। অত্যন্ত দুঃখজনক এবং বেদনাদায়ক ঘটনা এটি। হিংসার জেরেই কোচবিহারে এই ঘটনা ঘটেছে। আধাসেনা এবং সরকারি কাজে নিযুক্ত সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের প্রতি সর্বদা সম্মান দেখানো উচিত’।

প্রথম থেকেই শীতলকুচির ঘটনায় কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং নির্বাচন কমিশনের দিকে আঙ্গুল তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। দোষারোপ করেছেন কেন্দ্রীয় সরকারকেও। এবার রাজ্যপাল নাম করেই এই ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

প্রসঙ্গত, শীতলকুচির (shitalkuchi) ঘটনায় কোন রাজনৈতিক দলের সেখানে প্রবেশের নিষেধাজ্ঞা জারী করেছিল নির্বাচন কমিশন। তবে শর্ত সাপেক্ষে রাজ্য সরকারকে (west bengal govt) আহত এবং নিহতদের পরিবারকে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সম্মতি দিল নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচন চলাকালীন এই ধরণের কোন ঘোষণা করা যায় না। তবে নির্বাচন কমিশন শর্ত দিয়েছে, কোন রাজনৈতিক দলের হয়ে নয়, ক্ষতিপূরণ তুলে দেবে প্রশাসন। এখানে কোন রাজনৈতিক দলকে প্রাধান্য দেওয়া যাবে না। সেই কারণে নির্বাচন কমিশনের অনুমতি নিয়ে আহতদের ২ লক্ষ টাকা করে এবং নিহতদের ৫ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তবে জানা গিয়েছে, এই ক্ষতিপূরণ তাদের কাছে পৌঁছে দেবে কোচবিহারের জেলাশাসক।

Back to top button