টাইমলাইনবিনোদনভিডিও

অনুষ্ঠানের স্পনসর চিনা সংস্থা, ‘সেরা অভিনেতা’র পুরস্কার প্রত‍্যাখ‍্যান করলেন জিৎ

বাংলাহান্ট ডেস্ক: গালওয়ান সীমান্তে ভারত-চিন উত্তেজনার প্রভাব ছড়িয়ে পড়েছে গোটা দেশে। ব‍্যতিক্রম নয় সিনে ইন্ডাস্ট্রিও। চিনা পণ‍্য বর্জন করার দাবিতে ইতিমধ‍্যেই সরব হয়েছেন বলি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত। এবার টলিউডে চিনা আগ্রাসনের বিরুদ্ধে গর্জে উঠলেন অভিনেতা জিৎ (jeet)।
পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের স্পনসর হিসাবে চিনা সংস্থা যুক্ত থাকায় সেরা অভিনেতার পুরস্কার প্রত‍্যাখ‍্যান করলেন জিৎ। সম্প্রতি একটি সংস্থার তরফে সিনেমার ক্ষেত্রে একটি ভার্চুয়াল পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সেখানে দর্শকের বিচারে সেরা অভিনেতার খেতাব জেতেন জিৎ। কিন্তু সেই পুরস্কার প্রত‍্যাখ‍্যান করেন অভিনেতা।


নিজের ইনস্টা হ‍্যান্ডেলে একটি ভিডিও পোস্ট করে পুরস্কার গ্রহণ না করার কারন জানান জিৎ। তিনি জানান, ওই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের সঙ্গে একটি চিনা সংস্থা জড়িয়ে রয়েছে। সংস্থার নাম উল্লেখ না করে তিনি বলেন, কারওর সঙ্গে কোনও বিরোধ নেই তাঁর। কিন্তু বর্তমানে চিনের সঙ্গে ভারতের যা সম্পর্ক, চিনের আগ্রাসী মনোভাবের জন‍্যই শহিদ হতে হয়েছে ভারতীয় সেনার ২০ জন জওয়ানকে।
এমতাবস্থায় এই পুরস্কার গ্রহণ করার মানসিকতা তাঁর নেই বলে জানান জিৎ। তিনি আরও জানান, যতদিন না চিনের সঙ্গে ভারতের সম্পর্ক ফের স্বাভাবিক হচ্ছে ততদিন এই পুরস্কার তিনি গ্রহণ করবেন না। অভিনেতার কথায়, “আমরা সীমান্তে গিয়ে যুদ্ধ না করতে পারি, দেশবাসী হিসাবে এটুকু আমাদের কর্তব‍্য।”
জিতের এই ভিডিওর পরেই নেটিজেনের প্রশংসা উপচে পড়েছে। অনেকে বলেছেন, এমনটাই তারা আশা করেছিলেন জিতের কাছ থেকে। কয়েকজন বলেছেন, তারাও চিনা অ্যাপ ব‍্যবহার করা বন্ধ করে দেবেন।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগেই টিকটক ব‍্যান নিয়ে মুখ খুলেছিলেন নুসরত জাহান। তিনি বলেছিলেন, টিকটক ব‍্যান করা সরকারের হঠকারী সিদ্ধান্ত। এটি একটি বিনোদনের জন‍্য বানানো অ্যাপ। ভবিষ‍্যতের জন‍্য সরকারের পরিকল্পনা কি তাও প্রশ্ন তুলেছেন নুসরত। তাঁর অভিযোগ, মানুষকে বেকারত্বের যন্ত্রণা সহ‍্য করতে হবে এবার। নোটবন্দির মতো অবস্থা হবে।

Back to top button