টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘ক্ষমতা থাকলে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন চালু করুক’, বাবুল সুপ্রিয়কে পাল্টা দিলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হোক, এই বিষয়ে সরব হলেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় (babul supriyo)। তাঁর কথায় বাংলায় শাসক দল যেভাবে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে, হিংসা ছড়াচ্ছে, তাতে করে আসন্ন নির্বাচনের আগেই হয়ত বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন প্রয়োজন হয়ে পড়বে।

বাবুলের আক্রমণ
বাংলায় শাসক দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে এর আগেই রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার দাবি জানিয়েছিল বিরোধীরা। সেই সুরে সুর মিলিয়ে আবারও রাষ্ট্রপতি শাসনের হুঙ্কার দিলেন বাবুল সুপ্রিয়। তিনি বললেন, ‘সংবিধানে হিংস্র সরকারকে থামানোর পথ কিন্তু রয়েছে। বিরোধীদের উপর আক্রমণ করা, ভয় দেখিয়ে ভোট দিতে যাওয়া থেকে আটকে দেওয়া, মমতা ব্যানার্জী এসব করে পার পাবেন না। এসব থামানোর ব্যবস্থা লেখা আছে সংবিধানে’।

মমতা ব্যানার্জীকে দিলেন হুঁশিয়ারি
এখানেই থামেননি আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘হিংসার রাজনীতি আর চলবে না। এই রাজ্য জুড়ে হিংসার রাজনীতি, খুনের রাজনীতি আর মেনে নেওয়া যাচ্ছে না। রাষ্ট্রপতির কাছে বারবার এই নিয়ে আবেদনও করেছি আমরা। সময় মত কিন্তু সমস্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সামনের বাকি ৬ মাস নিজেকে শুধরে নিন’।

পাল্টা আক্রমণ করলেন সৌগত রায়
তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ সৌগত রায়, বাবুল সুপ্রিয়কে আক্রমণ করে বলেন, ‘৩৫৬ ধারা ঠিক কোন পরিস্থিতিতে লাগু করা যেতে পারে, আমরা সেটা খুব ভালো করেই জানি। সংবিধানটা হয় বাবুলের ভালো করে পড়া হয়নি। ভোটের আগে এভাবে অযথা তৃণমূলকে ভয় দেখানো যাবে না’।

কটাক্ষ করলেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়
বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়কে কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও (Kalyan Banerjee)। তিনি বললেন, ‘রোজ রোজ একই কথা না বলে, ক্ষমতা থাকলে বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করে দেখাক। অমিত শাহ, রাজ্যপাল আর এখন বাবুল সুপ্রিয় একই কথা বলছে। বাংলার মানুষ ঠিক এর জবাব দেবে’।

Back to top button