আন্তর্জাতিকটাইমলাইনবিনোদনভারত

ফ্রান্স ইস্যুতে মালেয়শিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে রক্ত পিপাসু বলে আক্রমণ করলেন কঙ্গনা!

Bangla Hunt Desk: ফ্রান্সের ঘটনায় মালেয়শিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর করা মন্তব্যের আক্রমণাত্মক প্রতিক্রিয়া দিলেন বলি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত (kangana ranaut)। শুধু তাই নয়, প্রতিক্রিয়া দেওয়ার সময় ট্যুইটে মালেয়শিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীকে রাষ্ট্রপতি বলায়, অপর ট্যুইটে তাঁর জন্য ক্ষমাও চাইলেন।

মাহাথির মহম্মদের ট্যুইট
বিগত কয়েকদিন ধরে ফ্রান্সে ঘটে চলে ঘটনার জেরে মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদ (Mahathir Bin Mohamad) বৃহস্পতিবার এক ট্যুইট করেন। ফ্রান্সের এক শিক্ষক মুসলিম পথ প্রদর্শক নবী হজরত মহম্মদের ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ করায় তাঁকে শিরচ্ছেদ করা হয়।

এই ঘটনার সমর্থন করে মাহাথির মহম্মদ লেখেন, ‘চোখের বদলে চোখ’  এই নীতিতে মুসলিমরা বিশ্বাসী নয়। সেই কারণে ফ্রান্সের মানুষদের উপর এখনও কোন প্রতিশোধ নেয়নি। উপনিবেশ তৈরির সময় ফ্রান্সের বাসিন্দারা লক্ষ লক্ষ মানুষকে হত্যা করেছিল, যার মধ্যে সিংহ ভাগ ছিল মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্তর্ভুক্ত। তাই বর্তমান সময়ে ফ্রান্সের মানুষদের উপর রাগ প্রদর্শন এবং তাদের হত্যা করার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে মুসলিম সম্প্রদায়ের।

কঙ্গনার পাল্টা জবাব
মালেয়শিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর এই ট্যুইটের পাল্টা জবাব দিয়ে বলি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত (kangana ranaut) এক ট্যুইট করে লেখেন, ‘এই মানুষটি রক্তের পিপাসি বলে মনে হচ্ছে। কি মূর্খতার মত যুক্তি দেখিয়েছেন তিনি। অতীতের ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে হিন্দুদের হত্যা অধিকার মুসলিমদের কি করে থাকে? কোন দেশের রাষ্ট্রপতি হয়েও তিনি কি করে এরকম নির্বোধের মত উক্তি করেন?’

ক্ষমা চাইলেন কঙ্গনা
মালয়েশিয়ার প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মহম্মদকে আক্রমণ করতে গিয়ে বলি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত ভুল করে তাঁকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী না বলে রাষ্ট্রপতি লিখে ফেলেন। নিজের ভুল বুঝতে পেরে পর মুহূর্তেই অপর একটি ট্যুইট করে কঙ্গনা লেখেন, ‘রাষ্ট্রপতি নয় প্রধানমন্ত্রী। দুঃখিত আমার ভুল হওয়ার জন্য। আমার প্রধানমন্ত্রী বলা উচিত ছিল’।

Back to top button