টাইমলাইনভারত

কঙ্গনার সমর্থনে নামল নামীদামী মানুষেরা, চারিদিক থেকে সমালোচনার শিকার মহারাষ্ট্র সরকার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ কঙ্গনা রানাওয়াতের (Kangana Ranaut) সম্পত্তির উপর BMC (Brihanmumbai Municipal Corporation) এর পদক্ষেপে মহারাষ্ট্র সরকারকে প্রশ্নের মধ্যে দাঁড় করিয়েছে। ট্যুইটারে অনেকেই মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে কে ট্যাগ করে জিজ্ঞাসা করছেন যে, এটা উচিৎ ছিল কি না? রাজনীতি থেকে শুরু করে বলিউডের অনেক বিখ্যাত মানুষ BMC এর এই পদক্ষেপের সমালোচনায় সরব হয়েছেন।

বলিউড অভিনেতা অনুপম খের এই পদক্ষেপের তুমুল সমালোচনা করেছেন। উনি লিখেছেন, ‘ভুল ভুল ভুল এটা!!! এটিকে bulldozer না Bullydozer বলে। কারও সম্পত্তি এরকম ভাবে ভেঙে দেওয়া একদম ভুল। এর সবথেকে বড় প্রভাব অথবা প্রহার কঙ্গনার বাড়িতে না, মুম্বাইয়ের মাটি আর বিবেকে হয়েছে।”

আরেকদিকে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ একটি ভিডিও জারি করে এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করেছেন। উনি বলেছেন, এরকম ঘটনা ইতিহাসে এর আগে কোনদিনও হয় নি। উনি বলেন, নিজের বিরুদ্ধে কথা বলা মানুষকে আমরা রাস্তায় থামিয়ে মারব আর এরকম করার জন্য সরকার সমর্থন করছে, এটা মহারাষ্ট্রের ইতিহাসে কোনদিনও হয় নি। উনি আরও বলেন, সরকারের এই পদক্ষেপের কারণে গোটা দেশে মহারাষ্ট্রের অপমান হচ্ছে।

ছোট পর্দার বিখ্যাত অভিনেত্রী দেবলীনা ভট্টাচার্যও (গোপি বহু) এই ঘটনার তীব্র প্রতিক্রিয়া দিয়েছে। উনি এই ঘটনাকে দুঃখজনক আখ্যা দিয়ে বলেন, ‘একজন পরিচিত এবং বিখ্যাত মানুষ হওয়ার খাতিরে উনি হয়ত অবৈধ নির্মাণ করেন নি। আর উনি এও বলেছেন যে, বিএমসি দ্বারা দেওয়া অনুমতির প্রমাণ আছে ওনার কাছে। আর সেই কারণে ওনার মুম্বাই পৌঁছান আর কাগজপত্র দেখানোর আগে এভাবে বিল্ডিং ভেঙে দেওয়া ঠিক না। আমার হিসেবে অপেক্ষা করার দরকার ছিল আর আল্টিমেটাম দেওয়ারও দরকার ছিল। যদি কিছু ভুল থাকত, তাহলে সেটিকে শোধরানো যেত, ওনার অনুপস্থিতিতে এরকম ভাবে অফিস ভাঙা ঠিক না।

এছাড়াও বিখ্যাত নিউজ অ্যাঙ্কর রোহিত সরদনাও এই বিষয়ে সরব হয়েছেন। উনি বলেছেন, ‘ফ্যাসিসম, ফ্যাসিসম করে চ্যাঁচানো মানুষ গুলো এখন কোন গর্তে ঢুকেছে? আসল ফ্যাসিসম দেখে ভয় পেয়ে গেছেন নাকি?

Back to top button