টাইমলাইনবিনোদন

হস্তক্ষেপের কোনো অধিকার নেই, জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে বড় আইনি জয় কঙ্গনার

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বম্বে হাইকোর্টে বড়সড় জয় কঙ্গনা রানাওয়াতের (kangana ranawat)। অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে গীতিকার জাভেদ আখতারের (javed akhtar) দায়ের করা হস্তক্ষেপ আবেদনের শুনানি না করার কথা ঘোষনা করে দিল আদালত। জাভেদ আখতারের অভিযোগ ছিল নিজের পাসপোর্টের নবীন করনের আবেদনে কঙ্গনা জেনেবুঝে আদলতকে ভুল তথ‍্য পেশ করেছে। কিন্তু সোমবার আখতারের এই মামলার শুনানি না করার ঘোষনা করে।

পাসপোর্টের নবীন করনের জন‍্য কঙ্গনা দাবি করেছিলেন তাঁর বিরুদ্ধে কোনো আদালতে কোনো মামলা দায়ের করা হয়নি। কিন্তু জাভেদ আখতারের আইনজীবীর বক্তব‍্য, অভিনেত্রীর এই দাবি সম্পূর্ণ মিথ‍্যা। পাসপোর্ট পাওয়ার জন‍্য মিথ‍্যার আশ্রয় নিয়েছেন কঙ্গনা। এই কারণেই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে আদালতে হস্তক্ষেপের আবেদন করেন জাভেদ।


কিন্তু জাস্টিস এস এস শিন্ডে ও জাস্টিস এন জে জমাদারের বেঞ্চ এই আবেদনের শুনানি না করার ঘোষনা করেন। উপরন্তু আদালতের তরফে জাভেদ আখতারকে বলা হয়, যদি এই হস্তক্ষেপের আবেদনের অনুমতি দেওয়া হয় তবে এমন হাজারো আবেদন জমা পড়বে।

তবে আদালতের তরফে এও পরামর্শ দেওয়া হয় অভিযোগকারী সরকারি আইনজীবীর দফতরে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করতে পারেন। গত বছরের সেপ্টেম্বরেই কঙ্গনার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু তাঁর পাসপোর্ট অফিসের তরফে বম্বে হাইকোর্টকে জানানো হয় অভিনেত্রীর পাসপোর্টের নবীন করনের আবেদন পত্রে বেশ।কিছু অসঙ্গতি রয়েছে।

কঙ্গনার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার মামলা দায়ের করা হয়েছিল। এ কারণে বম্বে হাইকোর্টের নির্দেশ ছাড়া তাঁর পাসপোর্টের নবীন করন সম্ভব ছিল না। কিন্তু কঙ্গনার আইনজীবী দাবি করেছিলেন তাঁর বিরুদ্ধে শুধুমাত্র দুটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে যার শুনানি শুরুই হয়নি। এরপরেই জাভেদ আখতার একটি হস্তক্ষেপ আবেদন দায়ের করে দাবি করেন তিনি নিজেই কঙ্গনার বিরুদ্ধে একটি মানহানির মামলা দায়ের করেছিলেন ২০২০ তে যার শুনানি এখনো বাকি রয়েছে।

Related Articles

Back to top button