খেলাক্রিকেট

দর্শকদের কেউ সঙ্গিনীকে নিয়ে বসে খেলেন গুটখা, কেউ ছড়া বাঁধলেন, সবমিলিয়ে জমজমাট কানপুরের গ্যালারিও

কানপুরের গ্রিন পার্কে আজ থেকে শুরু হয়েছে ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড টেস্ট সিরিজ। দীর্ঘদিন পরে কানপুরের মাটিতে আয়োজিত হয়েছে কোনও টেস্ট। শেষবার পাঁচ বছর আগে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসের শেষ দিকে গ্রিন পার্কে টেস্ট ম্যাচ খেলেছিল সিনিয়র ভারতীয় দল। সেই ম্যাচে ১৯৭ রানে জয় পেয়েছিল ভারত। সেবারও ভারতের প্রতিপক্ষ ছিল নিউজিল্যান্ড। তাই দীর্ঘদিন পরে আবারও সেইরকম এক ফলাফলের প্রত্যাশাতেই বৃহস্পতিবার স্টেডিয়াম অনেকটাই ভরিয়ে দিয়েছে কানপুরের দর্শক।

দর্শকদের হতাশ করেনি ভারতীয় দলও। প্রথমদিকে শুভমান গিলের দুর্দান্ত হাফ-সেঞ্চুরি মন ভরিয়ে দিয়েছিল দর্শকদের। মাঝে কাইল জেমিসন দর্শকদের আতঙ্ক বাড়ালেও শেষ বেলায় শ্রেয়স আইয়ার এবং রবীন্দ্র জাদেজার দুর্দান্ত ব্যাটিং মন ভরিয়ে দিয়েছি কানপুরের দর্শকদের। শেষবেলায় শ্রেয়স আইয়ার-কে নিয়ে ছড়া বাঁধতেও দেখা যায় দর্শককে। তবে এত কিছুর মধ্যেও নজর কাড়লেন এক বিশেষ দর্শক।

দিনের খেলা শেষ হতে তখনও দশ ওভার বাকি। শ্রেয়স আইয়ার তখন সদ্য অর্ধশতরানের গন্ডি পেরিয়েছেন। তখনই সম্প্রচারকারী ক্যামেরা তাক করা হয় দর্শকদের একটি অংশের দিকে। ক্যামেরার ফ্রেমে দেখা যায় এক ব্যাক্তি-কে। সঙ্গিনী-কে নিয়ে খেলা দেখতে এসেছিলেন তিনি।

সঙ্গিনীর সাথে খেলা দেখতে দেখতে সেই ব্যক্তি ফোনে কথা বলছেন। তার বিকৃত মুখভঙ্গি দেখে মনে হয়েছে তিনি গুটখা মুখে নিয়ে কথা বলছেন ফোনের অপরের প্রান্তের ব্যক্তির সাথে। একটি হাত রাখা সঙ্গিনীর কাঁধের ওপর। তার সঙ্গিনী চোখে একরাশ ভালোবাসা নিয়ে তাকিয়ে রয়েছেন ব্যক্তিটির দিক। ছবিটি সামনে আশা মাত্র ভাইরাল হয়ে যায়। নেটিজেনরা বেশ মজা পেয়েছেন ছবিটি দেখে। অনেকে আবার সেই ব্যক্তির গুটখা চর্বন থেকে বলেছেন এটি কানপুরের স্বাভাবিক চিত্র। অনেকে আবার বলছেন সঙ্গিনী সাথে নিয়ে বসেও যে গুটখা খাওয়া যায় তা আগে দেখা যায়নি। সব মিলিয়ে কানপুর টেস্ট প্রথমদিন থেকেই জমজমাট।

Related Articles

Back to top button