ক্রিকেটখেলাটাইমলাইন

বিশ্বকাপ ফাইনালের পর হাতাহাতি! যুব ক্রিকেটারদের কঠোর শাস্তির দাবি জানালেন কপিল-আজহার।

অনূর্ধ্ব 19 বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচ শেষে বাংলাদেশি খেলোয়াড়দের ক্রমাগত গালিগালাজের ভিত্তিতে প্রথমে বাদানুবাদে জড়িয়ে পড়েন ভারত এবং বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তারপর সেই বাদানুবাদ পরিণত হয় হাতাহাতিতে, ভারত এবং বাংলাদেশ দুই দলের ক্রিকেটাররা একে অপরের সাথে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন। এর ফলে নষ্ট হয় ক্রিকেটিয় স্পিরিট। এর জন্য সমস্ত দিক বিচার করে বাংলাদেশের তিন জন এবং ভারতের দুই জন ক্রিকেটার কে শাস্তি দেওয়া হয়েছে আইসিসির তরফে। তবে এই ব্যাপারটি নিয়ে এবার মুখ খুললেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী প্রাপ্তন অধিনায়ক কপিল দেব এবং মহম্মদ আজহারউদ্দিন। তাদের মতে ক্রিকেট হচ্ছে ভদ্র লোকের খেলা আর এই খেলাকে কলঙ্কিত করার জন্য বিসিসিআই এর উচিত ভারতের ওই দুই ক্রিকেটারকে শাস্তি দেওয়া।

ভারতকে প্রথম বার বিশ্বকাপ এনে দেওয়া অধিনায়ক কপিল দেব এই বিষয়টি নিয়ে বলেছেন আমি চাই অভিযুক্ত ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে যাতে কঠোর থেকে কঠোরতম ব্যবস্থা নেয় বিসিসিআই। যাতে এটা একটা উদাহরণ হয়ে থাকে এর পর কোন ক্রিকেটার এইরকম ব্যবহার করার আগে যাতে দুবার ভাবে। কারণ কপিল দেবের মতে ক্রিকেটে একটা নিয়ম-শৃঙ্খলা রয়েছে, বিপক্ষ দল তোমাকে স্লেজিং করতেই পারে তবে তার জবাব হাতাহাতিতে নয়, ব্যাটেবলে দিতে হয়। তাই কপিল দেব চান অভিযুক্ত ক্রিকেটাররা কঠোর শাস্তি পাক।

কপিল দেবের সাথে সুর মিলিয়েছেন ভারতের আর এক প্রাক্তন অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিন। তিনি শুধু ক্রিকেটারদেরই নন সেইসাথে দলের সাপোর্টিং স্টাফদেরও তুলোধোনা করেছেন। আজাহারউদ্দিন জানিয়েছেন কি করে এইরকম মানসিকতা হতে পারে যুব ক্রিকেটারদের? তার জন্য তাদেরকে যথাযথ শিক্ষা দেওয়া উচিত ছিল দলের কোচিং স্টাফদের। আমি হলে এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতাম।

Back to top button