fbpx
টাইমলাইনভারতরাজনীতি

নরেন্দ্র মোদীকে কটাক্ষ পাকিস্তানের, ক্ষোভ উগড়ে দিলেন অরবিন্দ কেজরিবাল

বিধানসভা নির্বাচনে ৭০ এর মধ্যে ৬২ টি আসনে জয়লাভ করে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসেছে আপ।দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি খারাপভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। 70 টি আসনের অনুষ্ঠিত নির্বাচনে, বিজেপি পেয়েছে মাত্র আটটি আসন। আম আদমি পার্টি 62 টি আসন জিতেছে।

এই পরাজয়ের পরে, দিল্লি বিজেপি সভাপতি মনোজ তিওয়ারি যে দাবি করেছেন তাতে বড় ধাক্কা লেগেছে। অন্যদিকে কম আসন নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে বিজেপিকে। আর  বিরোধীদের থেকে বিজেপির এই হারে কয়েকগুণ বেশি খুশি প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান।

 

 

ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে বরাবরই মাথা ঘামায় ইমরান রাজত্ব। দিল্লিতে বিজেপির হার নিয়ে জল্পনা জুড়ে দিয়েছে ইমরান-ক্যাবিনেট সহ পাক-সংবাদমাধ্যমও। মঙ্গলবার সন্ধ্যেয় দিল্লির ফলাফল ঘোষণা হতেই তার প্রভাব পড়ে পাকিস্তানেও। পাকিস্তানের একাধিক সংবাদমাধ্যম এমনকি প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের মন্ত্রীরাও মন্তব্য করেছেন।

দিল্লির নির্বাচন নিয়ে ইতিমধ্যেই ট্যুইট করেন পাকিস্তানের তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুর লেখেন, “ইয়ে ক্যায়া হুয়া?”  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তিন এরপর ‘বেচারা’ বলে বলে অপমান করেন।বিজেপির এই হারে বেসি খুশি পাকিস্তান, কিন্তু  পাক-মন্ত্রীর এই মন্তব্যে পাল্টা জবাব দিয়েছেন স্বয়ং অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তিনি বলেন “নরেন্দ্র মোদী সমগ্র ভারতের প্রধানমন্ত্রী। উনি আমারও প্রধানমন্ত্রী এবং দিল্লির নির্বাচন ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়। এক্ষেত্রে সন্ত্রাস উৎপাদনকারী দেশের কোনও বক্তব্যই আমরা বরদাস্ত করব না”।বিজেপির হার নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে ইমরান-ক্যাবিনেট সহ পাক-সংবাদমাধ্যমও। এরা বিজেপির এই হার নিয়ে বেশ কদিন ধরে অনেক মজা করেন।

Back to top button
Close
Close