টাইমলাইনখেলাক্রিকেট

‘গোটা দেশ আমাদের দলের বিরুদ্ধে খেলছে’, ক্ষুব্ধ কোহলির প্রতিক্রিয়া আলোড়ন ফেলেছে ক্রিকেট বিশ্বে

বাংলা হান্ট নিউজ ডেস্ক: ভারতের বিরুদ্ধে দক্ষিণ আফ্রিকার তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজে দুর্বল আম্পায়ারিংয়ের কারণে আফ্রিকান আম্পায়াররা ইতিমধ্যেই ভারতীয় ক্রিকেটভক্তদের সমালোচনার মুখে পড়েছেন। কিন্তু কেপটাউনে তৃতীয় টেস্ট ম্যাচের তৃতীয় দিনে এমন একটি ঘটনা ঘটেছে যা ব্যাপক আলোড়ন ফেলে দিয়েছে ক্রিকেট জগতে। এই ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার দ্বিতীয় ইনিংসের ২১ তম ওভারের চতুর্থ বলে তৃতীয় আম্পায়ারের একটি সিদ্ধান্ত ভারতীয় দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে অসন্তুষ্ট করে তোলে।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ইনিংসের ২১তম ওভারে বল করতে আসেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। এই ওভারের চতুর্থ বলে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ডিন এলগারকে উইকেটের সামনে লেগ বিফোরের ফাঁসে ফাঁসিয়ে অশ্বিন। ফিল্ড আম্পায়ারও এলবিডব্লিউ সিদ্ধান্ত দিতে ইতস্তত করেননি। কিন্তু এরপর যে ঘটনা ঘটে তা নিয়েই গড়ে ওঠে বিতর্ক।

আউট হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ডিআরএস রিভিউ নেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ডিন এলগার। এরপর টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, বলটি ব্যাটসম্যানের হাঁটুর নিচে উইকেট লাইনে আঘাত করে। সাধারণত এমন পরিস্থিতিতে ব্যাটসম্যানের পক্ষে এলবিডব্লিউ এড়ানো প্রায় অসম্ভব, তবে বল ট্র্যাকিং দেখায় যে বলটি উইকেটের উপর দিয়ে চলে যাচ্ছে অর্থাৎ স্টাম্প মিস করছিল। এরপর তৃতীয় আম্পায়ার ডিন এলগারকে নট আউট দেন।

এরপর মাঠের আম্পায়ার মারাইস ইরাসমাসকে তার সিদ্ধান্ত বদলাতে হয়, কিন্তু তিনি যখন সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেন, তখন তার মুখ থেকে বেরিয়ে আসে, ‘এটা অসম্ভব’। এই ম্যাচে তৃতীয় আম্পায়ারের ভূমিকায় রয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার আলাউদ্দিন পালেকার। কোভিডের কারণে, এই মুহূর্তে সমস্ত আম্পায়ার হোম দলের (দক্ষিণ আফ্রিকা) অন্তর্গত। থার্ড আম্পায়ার আলাউদ্দিন পালেকারের এই সিদ্ধান্তের পর বিরাট কোহলিকে বেশ ক্ষুব্ধ দেখাচ্ছিল। এই ঘটনার পর বিরাট কোহলি  আর সহ অধিনায়ক লোকেশ রাহুলকে বলতে শোনা গিয়েছিল, গোটা দেশ ভারতের ১১ জন ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে। ইঙ্গিতটা কিন্তু বেশ স্পষ্টই।

Related Articles

Back to top button