টাইমলাইনবিধানসভা নির্বাচনবিনোদনরাজনীতি

ঝাড়খন্ডে নারী সুরক্ষা নেই বলে বেফাঁস মন্তব‍্য, কৌশানিকে তুমুল ট্রোল করলেন রিমঝিম

বাংলাহান্ট ডেস্ক: বিধানসভা নির্বাচনের আগে আগে রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার জোয়ারে গা ভাসিয়েছিলেন টলিউড অভিনেত্রী কৌশানি মুখার্জি (koushani mukherjee)। তৃণমূলে (tmc) যোগ দিয়েছেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরে তৃণমূলকে সমর্থন করে এসেছেন তিনি। মুখ‍্যমন্ত্রী মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়ের সভায় দেখা যেত তাঁকে। শেষমেষ আনুষ্ঠানিক ভাবে সক্রিয় রাজনীতিতে পা রাখেন কৌশানি।

কৃষ্ণনগর উত্তর থেকে তৃণমূলের হয়ে প্রার্থী হয়েছেন কৌশানি মুখার্জি। রাজনীতিতে আনকোরা হলেও প্রার্থী হিসাবে নাম ঘোষনা হওয়ার পর প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন অভিনেত্রী। আর এই প্রচারের ফাঁকে এমন কিছু মন্তব‍্য করেছেন কৌশানি যে ইতিমধ‍্যেই বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছেন তিনি।


সম্প্রতি কৌশানি মন্তব‍্য করেন ঝাড়খন্ডে মেয়েদের দুপুরে বাইরে বেরোনো দেওয়া হয় না কারণ ওখানে নারী সুরক্ষা নেই। বিজেপিকে কটাক্ষ করার উদ্দেশেই যে এই মন্তব‍্য কৌশানি করেন তা নিয়ে দ্বিধা নেই অনেকেরই। তবে বিজেপিকে ট্রোল করতে গিয়ে ভুলবশত নিজেই ট্রোল হয়ে গিয়েছেন তৃণমূলের এই তারকা প্রার্থী।

কৌশানি সম্ভবত ভেবেছিলেন ঝাড়খন্ড বিজেপি শাসিত রাজ‍্য। তাই গেরুয়া শিবিরের উপর তোপ দাগতে গিয়ে নারী সুরক্ষা প্রসঙ্গে ঝাড়খন্ডের নাম উল্লেখ করেন তিনি। কিন্তু আসলে ঝাড়খন্ডের মুখ‍্যমন্ত্রী হেমন্ত সোরেন নিজের দল ঝাড়খন্ড মুক্তি মোর্চার সঙ্গে কংগ্রেসের জোট বেঁধে মুখ‍্যমন্ত্রী হন।

বলা বাহুল‍্য কৌশানির এমন ভুল নজর এড়ায়নি গেরুয়া শিবিরের। বিজেপি প্রার্থী তথা অভিনেত্রী রিমঝিম মিত্র এই সুযোগ ছাড়েননি। তৃণমূলের তারকা প্রার্থীকে তীব্র কটাক্ষ করে তিনি লেখেন, ‘কৌশানীদিদি বলছে ঝাড়খন্ডে নাকি দুপুর তিনটের পর মা বোনেদের বাড়ির বাইরে বেরোতে দেওয়া হয়না ওখানে নারী সুরক্ষা নেই বলে? তাই, সোরেনবাবু?’


তবে এখনো পর্যন্ত রিমঝিমের এই কটাক্ষের কোনো জবাব মেলেনি কৌশানির তরফে। এখানেই শেষ নয়।সম্প্রতি কৌশানির একটি ভিডিও তুমুল ভাইরাল হয়েছে সোশ‍্যাল মিডিয়ায়। সেখানে দেখা যাচ্ছে প্রচারে তিনি বলছেন, ‘সবার ঘরে মা বোন আছে, ভোটটা ভেবে দিবি’। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই প্রয়াত তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেতা তাপস পালের ছায়া দেখতে পেয়েছেন অনেকে। কৌশানির সঙ্গে তাপস পালের তুলনা করে চলছে সমালোচনা। তবে বাংলাহান্ট এই ভিডিওর সত‍্যতা যাচাই করেনি।

তাপস পালেরও এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছি। কৃষ্ণনগরে দাঁড়িয়েই তিনি বলেছিলেন, ‘ঘরে ছেলে ঢুকিয়ে দেব। আমি চন্দননগরের মাল’। তুমুল বিতর্ক হয়েছিল তাপস পালের এই মন্তব‍্য নিয়ে। এমনকি তাঁর মৃত‍্যুর পরেও তাঁর সতীর্থরা মন্তব‍্য করেছিলেন ওই একটি বিতর্কের জন‍্যই তাপস পালের রাজনৈতিক ও ছবির কেরিয়ার শেষ হয়ে যায়। যা জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন তিনি তাও হারান।

কৌশানির এই ভিডিওতে অনেকেই তাপস পালের ছায়া দেখেছেন। তবে এই বিতর্কিত ভিডিও নিয়ে কৌশাইর বক্তব‍্য তাঁর মন্তব‍্যের ভুল ব‍্যাখ‍্যা করা হয়েছে। উপরন্তু তাঁর ও দলের দুর্নাম করার জন‍্যই এডিট করে ভাইরাল করা হয়েছে এই ভিডিও।

Related Articles

Back to top button