টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচনরাজনীতি

‘মুকুল রায় তো কান্নাকাটি করছিলেন, আমার সুপারিশেই কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হয়েছিলেন’, বিস্ফোরক দাবি কুণাল ঘোষের

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ একসময়কার রাজনৈতিক সঙ্গী মুকুল রায়ের (Mukul Roy) নামে বিস্ফোরক দাবি তুললেন কুণাল ঘোষ (kunal ghosh)। তাঁর সুপারিশেই নাকি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর পদ পেয়েছিলেন মুকুল রায়, এমনটা দাবি করলেন কুণাল ঘোষ। বর্ধমানের খণ্ডঘোষের সভা থেকে মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ ওগরালেন কুণাল ঘোষ।

আসন্ন নির্বাচন প্রসঙ্গে বিরোধীদের টার্গেট করতে গিয়ে ১১ বছর আগেকার পুরনো কথা টেনে আনলেন কুণাল ঘোষ। ক্ষোভ উগরে দিলেন মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে। তৃণমূলের মুখপাত্রের কথায়, ‘একটা সময় তৃণমূল কংগ্রেসের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড ছিলেন এই মুকুল রায়। তখন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জির ঠিক পরের আসনেই ছিলেন মুকুল রায়। মমতা ব্যানার্জির পর, তিনি ছিলেন দলের সর্বেসর্বা। তবে তৃণমূল যখন ইউপিএ-টু সরকারের শরিক হয়েছিল, তখন কিন্তু মুকুল রায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর তালিকায় ছিলেন না। সেই তালিকায় ঢোকার জন্য তাঁকে সুপারিশ করা হয়েছিল। কিন্তু এখন দেখুন বিজেপিতে গিয়ে পুরো ভোলবদলে ফেলেছে নিজের’।

কুণাল ঘোষের কথায়, ‘মমতা ব্যানার্জি রেলমন্ত্রী হওয়ার সঙ্গে সেই তালিকায় আরও পাঁচজন রাষ্ট্রমন্ত্রীর নাম ছিল। সেই তালিকায় নিজের নাম না থাকায় মুকুল রায় খুব কান্নাকাটি করছিলেন। শেষে আমাকে সুপারিশ করতে বলা হলে, আমার সুপারিশেই মুকুল রায়ের নাম কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর তালিকায় রাখা হয়’।

নির্বাচনের পূর্বে যেখানে বাংলায় গদি দখলের লড়াই চলছে, ঠিক সেই সময় তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষের এমন মন্তব্যের পর সরগরম হয়ে উঠেছে রাজ্য রাজনীতি। তবে এবিষয়ে এখনও অবশ্য কোন প্রতিক্রিয়া দেননি বিজেপির সর্বভারতীয় সহসভাপতি মুকুল রায়।

Back to top button