টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘আসল মাথারা ধরা পড়বে”, দুর্নীতির দায়ে গ্রেফতার কুন্তলের ইঙ্গিতে শোরগোল বঙ্গ রাজনীতিতে

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ নিয়োগ দুর্নীতি (Recruitment Scam) ইস্যুতে ধুন্ধুমার রাজ্য! একের পর এক শাসক দলের নেতা মন্ত্রীরা ধরা পড়ছে তদন্তকারী সংস্থার জালে। সেই ফাঁদেই পা দিয়ে গত সপ্তাহে শিক্ষক দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন তৃণমূলের যুবনেতা কুন্তল ঘোষ (Kuntal Ghosh)। তাঁকে ভর করেই এবার জোরদার তদন্তে নেমেছে ইডি (ED)। এদিন সেই কুন্তলই দুর্নীতি কাণ্ডে বিস্ফোরক দাবি তুলে সরব। “তদন্ত হলে সব ফাঁস হবে, আসল মাথারা ধরা পড়বে।” বুধবার এমনই চাঞ্চল্যকর দাবি তুললেন অভিযুক্ত যুবনেতা।

প্রসঙ্গত, এদিন বিধাননগর হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে যান কুন্তল ঘোষ। সেখান থেকেই বিস্ফোরক দাবি করলেন তৃণমূলের যুবনেতা। এদিন সাংবাদিকরা তাঁকে নীলাদ্রি ও গোপাল দলপতির প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করলে কিছুক্ষন চুপ থেকে তিঁনি বলেন, “তদন্ত হলে সব ফাঁস হবে। আসল মাথারা ধরা পড়বে। ঠিক সময়ে দেখতে পাবেন কে দোষী আর কে নির্দোষ। চক্রান্ত হয়েছে। সব থেকে বড় চক্রান্ত।”

উল্লেখ্য, ধৃত কুন্তলের বিরুদ্ধে জেলবন্দি মানিক ঘনিষ্ঠ তাপস মণ্ডল তদন্তকারী সংস্থার কাছে অভিযোগ তুলে বলেন, কুন্তল চাকরি দেওয়ার নাম করে প্রার্থীদের কাছ থেকে কোটি কোটি টাকা তুলেছেন। যার পরিমান প্রায় ১৯ কোটি ৪৪ লক্ষ টাকা। এরপরই কুন্তলকে জেরা করে গোয়েন্দা সংস্থা। তবে তদন্তে অসহযোগিতার অভিযোগে ইডির হাতে গ্রেফতার হন কুন্তল।

kuntal ghosh

অন্যদিকে, হেফাজতে থাকাকালীন কুন্তল অভিযোগ করেন, তাপস তাঁর কাছ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা ‘ঘুষ’ হিসেবে চেয়েছিলেন। কুন্তলের আরও দাবি, এই নিয়োগ দুর্নীতির মাথা অন্য কেউ। আর তদন্ত হলে সেই বড় মাথারা ধরা পড়বে। নিজের কথায় কার বা কাদের দিকে ইঙ্গিত করলেন কুন্তল? রহস্যভেদ করতে খোঁজ চালাচ্ছে ইডি।

Related Articles