টাইমলাইনভারতআন্তর্জাতিক

দীপাবলিতে চীন থেকে আনা হবে না লক্ষী, গণেশের মূর্তি বা প্রদীপ: ইঙ্গিত দিলেন যোগী আদিত্যনাথ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসের (COVID-19) কারণে চীনকে বয়কট করে চীনা দ্রব্য আনতে নারাজ উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাস তান্ডবলীলা চালাচ্ছে। সমগ্র পৃথিবীতে প্রায় ৩ লক্ষ মানুষ এই ভাইরাসের কবলে পড়ে প্রাণ হারিয়েছে। ভারতেও এই ভাইরাসের প্রসারতার জন্য চীনের বিরুদ্ধে গিয়ে এক ঘোষণা করলেন উত্তরপ্রদেশ সরকার।

রোজগার সংগম অনলাইন লোনের শুভ উদ্ভোধন
উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী বৃহস্পতিবার রোজগার সংগম অনলাইন লোনের শুভ উদ্ভোধন করেন। মাত্র এক ক্লিকেই তিনি এত বড় ঋণ দেওয়ার পরিষেবা চালু করলেন। এইদিন তিনি জানান বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতা সকলকে গ্রাস করেছে। এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে গিয়ে সকলকে এক হতে হবে।

গোরক্ষপুরের টেরাকোটা থেকে নেওয়া হবে পূজার মূর্তি
পূজার উপকরণ হিসাবে কোনরকম মূর্তি এবং প্রদীপ আর আনার হবে না চীন থেকে, সাফ জানিয়ে দিলেন তিনি। এমনকি পূজার গৌরি-গণেশ মূর্তিও আনা হত চীন থেকে। এবার তাতেও নিষেধাজ্ঞা জারী করল উত্তরপ্রদেশ সরকার। তিনি বললেন, গোরক্ষপুরের টেরাকোটা কি এই মূর্তি নির্মাণ করতে পারবে না? আমরা নকশা দেখিয়ে দেব, এবং তারা সেভাবেই মূর্তি বানিয়ে দেবে’।

চীন থেকে মাটির প্রদীপও আনতে নারাজ যোগী সরকার
অযোধ্যায় আলোর উৎসবে প্রথম বছর প্রায় ৫১০০০ টি মাটির প্রদীপ প্রজ্বলন করা হয়েছিল। তখন প্রায় সমগ্র উত্তরপ্রদেশ ঘুরে ঘুরে এই মাটির প্রদীপ সংগ্রহ করা হয়েছিল। কিন্তু এবারে এই প্রদীপ আর এই প্রদীপ চীন থেকে আমদানি করা হবে না। রাজ্য মধ্যস্থ প্রদীপ দিয়েই উৎসব পালন করা হবে।

রাজ্য মধ্যস্থ বিভিন্ন শিল্প সাফল্যলাভ করবে
গোরক্ষপুরের টেরাকোটা জিআই পণ্যের অন্তর্ভুক্ত। এবং এই টেরাকোটা চীনের থেকে অনেকগুণ ভালো দ্রব্য প্রস্তুত করতে পারবে। এই সংস্থা বৌদ্ধিক সম্পত্তির অধিকার অর্জিনের পাশাপাশি সমগ্র বিশ্বের স্বীকৃতি একদিন অর্জন করবেই।উত্তরপ্রদেশের পিলিভিতে এবং আমরোহায় প্রচুর বাঁশি উৎপাদন করা হয়। এই বাঁশি একদিন সমগ্র বিশ্বের কাছে সাফল্য আনবেই। এছাড়াও গ্রামের কৃষকদের বিনামূল্যে জমি দেওয়া হয়েছে। তারা সেখান থেকে সেই জমি থেকে মাটি দিয়ে প্রদীপ এবং অন্যান্য জিনিস প্রস্তুত করছে। এবং পুকুরের জলও সংরক্ষণ করা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button