টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গ

কবে থেকে বাংলায় লোকাল ট্রেন! রেল ও রাজ্যের বৈঠকে এল উত্তর

কবে থেকে লোকাল ট্রেন (local train) ? নিত্যযাত্রীদের এই প্রশ্নের উত্তর মিলল রেল ও রাজ্যের বৈঠকের পরেই। জানা যাচ্ছে, অবশেষে লোকাল ট্রেন চালু করতে রাজি হল রাজ্য সরকার। রেলের সাথে রাজ্যের বৈঠকের পরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ৭২ ঘন্টার মধ্যেই লোকাল চালাতে চায় রেল। আপাতত ১০ শতাংশ লোকাল ট্রেন চালানো হবে বাংলায়। দীপাবলির পরে অবস্থা বুঝে ২৫ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ানো হতে পারে লোকাল ট্রেনের সংখ্যা।

A local train of kolkata

হাওড়া স্টেশনে যাত্রী বিক্ষোভের পর নড়েচড়ে বসেছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। লোকাল ট্রেন নিয়ে জনগনের মধ্যে ক্ষোভের পরিপ্রেক্ষিতে ভারতীয় রেলের সাথে আলোচনায় বসতে চেয়ে চিঠি দিয়েছিল রাজ্যের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। রাজ্য জানিয়েছিল, কোভিড বিধি মেনে সাধারণ যাত্রীদের জন্য সকাল ও দুপুরে ট্রেন চালাতে আগ্রহী রাজ্য।

এর আগে, মহারাষ্ট্র সরকার ভারতীয় রেলের কাছে লোকাল ট্রেন চালু করার বিষয়ে আবেদন করেছিল। যার পরিপ্রেক্ষিতে সেন্ট্রাল রেল ও ওয়েস্টার্ন রেল জানিয়েছে বেশ কিছু বিধিনিষেধ মেনে তারা রেল চালু করতে প্রস্তুত। রেলের তরফে জানানো হয়েছে। লকডাউনের পূর্বে যেখানে লোকাল ট্রেনে গড়ে ৩৫ লাখ যাত্রী যাতায়াত করত, এবার সেই সংখ্যা কমে ৯.৬ লাখ করা হচ্ছে।

অন্যদিকে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে বিভিন্ন শাখায় বার বার যাত্রী বিক্ষোভের সম্মুখীন হয়েছে রেল। গত পরশু হাওড়া স্টেশনের বাইরে বিপুলসংখ্যক জনতা একত্রিত হয়ে রেলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দেয়। তাদের দাবি করোনা আবহে রেল না খোলায় তাদের যাতায়াত খরচ বেড়ে গিয়েছে। সবই যখন খোলা তখন কেন বন্ধ লোকাল ট্রেন। অভিযোগ এই বিক্ষোভ থামাতে লাঠিচার্জ করে রেল পুলিশ।

এই ঘটনাকে নিন্দাজনক ব্যাখা দিয়ে রাজ্য সরকার রেলের সাথে আলোচনায় বসতে চেয়েছিল। সরকার মেট্রো রেল এর উদাহরণ এনে জানিয়েছিল, শান্তিপূর্ণ ও সঠিকভাবে মেট্রো চালাতে সাহায্য করছে সরকার। তেমনভাবেই সকাল ও দুপুরে রেল চালাতেও আগ্রহী তারা। এক্ষেত্রে রেলকে সাহায্য করতে প্রস্তুত সরকার। আজ সেই বৈঠকেই লোকাল ট্রেন চালু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে

Back to top button