টাইমলাইনরাজনীতি

লকডাউন ভাঙায় সাংসদ জন বার্লা এখন গৃহবন্দি, স্বতঃপ্রনোদিত মামলা দায়ের করল পুলিশ

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ লকডাউন (lockdown) আইন ভাঙায় ‘গৃহবন্দি’ আলিপুর দুয়ারের সাংসদ জন বার্লা (John Barla)। আলিপুর দুয়ারের সাংসদ জন বার্লার বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রনোদিত মামলা দায়ের করলো বীরপাড়া থানার পুলিশ। পরিস্থিতি স্ববিস্তারে জানিয়ে অমিত শা-র হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিলেন সাংসদ।

রবিবার ত্রাণ বিলি করতে গিয়ে তাকে আটকে দেয় বানারহাট থানার পুলিস। এরপর বাড়ি ফিরে আসেন সাংসদ। গতকাল সোমবার লক্ষীপাড়া চা বাগান এলাকায় ফের ত্রাণসামগ্রী বিলি করতে গেলে বাধা দেয় পুলিস। শুরু হয় পুলিশের সাথে বচসা।
মঙ্গলবার ত্রাণসামগ্রী নিয়ে কোচবিহারে ঝড়বিধ্বস্ত এলাকায় ত্রাণ বলি করতে যাবেন বলে বের হতে গেলে তিনি লক্ষ করেন তার বাড়ি ঘিরে রেখেছে পুলিস। লক্ষ্মীপাড়া চা বাগানে (Lakshmipara tea garden) তার বাড়িতে পুলিশ পিকেট বসানো হয়েছে। তাকে বাড়ি থেকে বের হতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন খোদ সাংসদ।

ঘটনায় আলিপুরদুয়ারের পুলিশ সুপার অমিতাভ মাইতি ( Amitabh Maiti) টেলিফোনে জানান, সাংসদ লকডাউন আইন উপেক্ষা করে চারিদিকে ঘুরছেন। এই অভিযোগে ওসি বীরপাড়া জন বার্লার বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রনোদিত মামলা দায়ের করেছেন।

ইতিমধ্যেই এই ঘটনায় রাজনৈতিক বিতর্ক শুরু হয়েছে। ঘটনায় বিজেপির জলপাইগুড়ি জেলা সভাপতি বাপী গোস্বামী (Bapi Goswami) টেলিফোনে জানান, মানুষ ত্রাণের জন্য হাহাকার করছে। আমরা ত্রাণ দিতে গেলে আমাদের পিছনে পুলিস লেলিয়ে দিয়ে আমাদের ঘরে ঢুকিয়ে দিচ্ছে। আমাদের সাংসদ সহ অন্যান্য নেতা কর্মীদের ত্রাণসামগ্রী বিলি করতে দিচ্ছে না। মামলা দায়ের করা হচ্ছে। এর বিরুদ্ধে ধিক্কার জানিয়ে অমিত শার হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিয়েছেন সাংসদ। আমরা পরিষ্কার ভাবে জানাতে চাই মানুষ ডাকলে আমরা মানুষের পাশে যাবই। তারজন্য জেল জরিমানা যাই হোক আমরা পিছু হটবো না।

Related Articles