টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতিকলকাতা

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বিরোধীতা করে এবার বিস্ফোরক মন্তব্য মদন মিত্রের

বাংলাহান্ট ডেস্ক: আবারও অন্তঃকলহ ঘাসফুল শিবিরে? কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর দলের বিরুদ্ধে এবার মুখ খুললেন তৃণমূলের ‘কালারফুল বয়’ মদন মিত্র।পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বক্তব্যের প্রেক্ষিতেই এদিন কার্যত বিস্ফোরক কিছু মন্তব্য করেন তিনি।

কিছুদিন আগেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়ে সোচ্চার হন শ্রীরামপুরের তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়।  তার পরই শনিবার  তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় এই ব্যাপারে নিজের বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন দলের কারও যদি কোনো সমস্যা থেকে থাকে তাহলে তা দলকেই জানাতে হবে, সংবাদমাধ্যম বা সোশ্যাল মিডিয়ায় নয়। এতে দলের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আর এর পরই রীতিমতো তৃণমূল মহাসচিবের বক্তব্যের বিরোধিতা করে মুখ খুললেন কামারহাটির বিধায়ক মদন মিত্র।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের কথার প্রসঙ্গ টেনে মদন মিত্র  বলেন, ‘মহাসচিব প্রায় এক লক্ষ বার বলেছেন কোনো সমস্যা হলে শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির কাছে যাবে। এই জন্য তাঁকে ধন্যবাদ জানাই। কিন্তু আগে আমাদের কার্যালয় ছিল হরিশ মুখার্জি স্ট্রীটে। এখন মুখ্যমন্ত্রীর বাড়িতে যাওয়া সম্ভব নয় কোভিড পরিস্থিতির জন্য। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ও ব্যস্ত। তাহলে কোনো সমস্যার কথা কাকে জানাবো? কখন জানাবো? কীভাবে জানাবো? কোথায় বসবে কমিটি?’ এমনকি দল চাইলে এই মন্তব্যের জন্য তাঁর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই পারে বলেও জানিয়েছেন মদন মিত্র।

স্বভাবতই, মদন মিত্রের মতন হেভিওয়েট নেতার এহেন বিস্ফোরক মন্তব্যে অস্বস্তিতে রাজ্যের ঘাসফুল শিবির। তাবড় নেতাদের এহেন কোন্দল কী তৃণমূলের অন্তর্দ্বন্দ্বেরই বহিঃপ্রকাশ?  সে প্রশ্নের উত্তর সময়ই দেবে।

Related Articles

Back to top button