টাইমলাইনবিনোদন

‘শরীরটা ওর, নিজের ইচ্ছামতো পোশাক পরবে’, প্রিয়াঙ্কার পোশাক বিতর্কে সরব মা মধু চোপড়া

বাংলাহান্ট ডেস্ক: তাঁকে ঘিরে বহুবার সৃষ্টি হয়েছে নানা বিতর্ক। বিভিন্ন কারনে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে, কিন্তু সব কিছুকেই তুড়ি মেরে উড়িয়ে নিজের ইচ্ছামতো জীবনযাপন করেছেন তিনি। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, বলিউডের দেশি গার্ল। এখন বিবাহসূত্রে বিদেশে থাকলেও মনে মনে কিন্তু তিনি খাঁটি ভারতীয়। কিন্তু ওয়েস্টার্ন পোশাক পড়ার জন্য প্রায়ই নানা সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে। সম্প্রতি ৬২তম গ্র্যামি অ্যাওয়ার্ডসে একটি নেকলাইন পোশাক পড়ে এসেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। তার জন্য একদিকে যেমন প্রশংসা কুড়িয়েছেন পিগি আবার অপরদিকে ঘোরতর সমালোচনারও সম্মুখীন হয়েছেন।

প্রিয়াঙ্কার সমর্থনে অনেকেই এগিয়ে এসেছেন। এবার মুখ খুললেন তাঁর মা মধু চোপড়া। এটা তাঁর নিজের জীবন, তাই নিজের ইচ্ছামতোই পোশাক পরতে পারেন প্রিয়াঙ্কা, এমনটাই মন্তব্য করেন মধু। মেয়ের পোশাক নিয়ে যে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে তা নিয়ে খুশিই হয়েছেন তিনি। মধু চোপড়ার কথায়, “আমি খুশি হয়েছি এই বিতর্কটা হয়েছে। এতে ও মানসিক ভাবে আরও  শক্তিশালী হবে। এটা ওর নিজের জীবন, নিজের মতো করেই বাঁচবে। ওর শরীর, নিজের ইচ্ছামতো পোশাক পরবে। যারা ট্রোল করে তাদের সামনে আসার সাহস নেই। ওরা দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্যই এইসব করে।”

মধু আরও জানান, প্রিয়াঙ্কার পোশাকটা তাঁর বেশ পছন্দ হয়েছে। কিন্তু পোশাকটা পরায় যথেষ্ট রিস্ক ছিল। তবুও প্রিয়াঙ্কা খুব ভাল ভাবেই ক্যারি করেছে। এই প্রসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা জানান, তাঁর স্কিনটোনের সঙ্গে মিলিয়ে একটি কাপড় দিয়ে পোশাকের সামনের অংশ জোড়া ছিল। সেটা ক্যামেরায় বোঝা সম্ভব ছিল না। তিনি আরও বলেন, কোনও অনুষ্ঠান বা অ্যাওয়ার্ড শোতে এমন কোনও পোশাক পরে তিনি যান না যেটা নিয়ে তাঁর মনে সংশয় আছে।

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে সম্প্রতি ‘দ্য হোয়াইট টাইগার’ ছবির শুটিং শেষ করলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তিনি ছাড়াও এই ছবিতে রয়েছেন রাজকুমার রাও ও আদর্শ গৌরব। অরবিন্দ আদিগার ম্যান বুকার পুরস্কার জয়ী উপন্যাসের ওপর ভিত্তি করে তৈরি এই ছবি। পরিচালনা করছেন রামিন বাহরানি। নেটফ্লিক্সে দেখা যাবে এই ছবি।

Back to top button