টাইমলাইনখেলাআন্তর্জাতিকক্রিকেট

ডেলিভারির আগে কেন বলে চুমু খেতেন মালিঙ্গা, জানলে অবাক হবেন আপনিও

 

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ অবশেষে ক্রিকেট জীবন থেকে অবসর গ্রহণ করেছেন শ্রীলঙ্কার অন্যতম কিংবদন্তি তারকা পেসার লসিথ মালিঙ্গা। ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কাকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতানো এই অধিনায়ক নিজের জীবনে একাধিক রেকর্ড তৈরি করেছেন। তিনি বিশ্বের প্রথম বোলার যিনি একদিনের ম্যাচে তিন তিনবার হ্যাটট্রিক করেছেন। শুধু তাই নয় বিশ্বকাপেও দু-দুবার হ্যাটট্রিক রয়েছে তার নামে।

একদিকে যেমন দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চার বলে চারটি উইকেট তুলে নিয়ে রেকর্ড গড়েছিলেন মালিঙ্গা, তেমনি ২০১১ বিশ্বকাপে কেনিয়ার বিরুদ্ধেও হ্যাটট্রিক করেন তিনি। নিজের জীবনে চূড়ান্ত ফর্মে থাকাকালীন বিশ্বের যে কোন ব্যাটসম্যানের কাছে রীতিমতো ত্রাস ছিলেন এই শ্রীলঙ্কান বোলার। সারা বিশ্বজুড়ে প্রায় ২৯ টি টি-টোয়েন্টি লিগে অংশগ্রহণ করা এই ইয়ার্কার কিং গতকাল নিজের অবসর ঘোষণা করেছেন। ২০২১ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে চেয়ে ছিলেন তিনি। তবে নির্বাচকরা তাকে সেই সুযোগ দেননি৷ আর সেই কারণেই অবসর গ্রহণ করেন এই বোলার।

মালিঙ্গার একটি অদ্ভুত অভ্যাস, সমর্থকদের কাছে রীতিমতো জনপ্রিয়। প্রত্যেকটি বল ডেলিভারি করার আগে, বলে চুম্বন করতে দেখা যেত এই কিংবদন্তিকে। কেন এমন করতেন মালিঙ্গা? মালিঙ্গা জানিয়েছেন, আসলে তিনি এটি করেন ক্রিকেটকে সম্মান জানাতে। তার কথায়, ‘ক্রিকেট আমার পেশা এবং এভাবেই আমার জীবন চলে। একজন বোলার হিসেবে আমি বলকে সম্মান করি। বলে চুমু খাওয়া আমার অভ্যাস, যা আমি আমার কেরিয়ারের শুরু থেকে করে আসছি।”

মালিঙ্গার এই অভ্যাস এক চূড়ান্ত দৃষ্টান্ত, একজন পেশাদারী ক্রিকেটার কিভাবে তার পেশাকে সম্মান জানাতে পারেন। বলাই বাহুল্য যে বলকে এতখানি সম্মান করেন মালিঙ্গা, সেই বল বহু কিছু ফিরিয়ে দিয়েছে তাকে। একদিকে যেমন তিনি আইপিএলের সেরা উইকেট শিকারী তেমনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও সব মিলিয়ে পাঁচশোর কাছাকাছি উইকেট শিকার করেছেন এই তারকা।

 

Related Articles

Back to top button