টাইমলাইনভারতরাজনীতি

UPA-র অস্তিত্ব নেই, রাহুল গান্ধী বছরের অর্ধেক দিন বিদেশে থাকেন! কংগ্রেসকে খোঁচা মমতার

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ পশ্চিমবঙ্গের (West Bengal) মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) কংগ্রেস (Congress) মুক্ত বিরোধী অভিযান শুরু করে দিয়েছেন। সম্প্রতি লোকসভায় শীতকালীন অধিবেশন চলাকালীন কংগ্রেস দ্বারা ডাকা বৈঠকে তৃণমূল কংগ্রেস হাজির ছিল না। আর এবার তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় UPA-র অস্তিত্ব নিয়েই প্রশ্ন তুললেন। পাশাপাশি তিনি কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধীকেও আক্রমণ করলেন। বিজেপিকে রোখার জন্য মুখ্যমন্ত্রী সমস্ত আঞ্চলিক দলগুলোকে এক করা নিয়ে জোর দেন। এর থেকে এই বোঝা যাচ্ছে যে, মমতা ব্যানার্জীর প্ল্যানে কংগ্রেসের এখন আর কোনও গুরুত্ব নেই।

মমতা ব্যানার্জী মুম্বইয়ের সফরের দ্বিতীয় দিনে NCP প্রধান শরদ পাওয়ারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এছাড়াও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে অসুস্থ থাকায় তিনি উদ্ধবপুত্র আদিত্য ঠাকরের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এরপর তিনি মুম্বাইয়ের সিবিল সোসাইটির সদস্যের সঙ্গে কথা বলার সময় ২০২৪-র নির্বাচনে বিজেপিকে কীভাবে হারাতে হবে সেটা নিয়ে আলোচনা করেন।

এই মিটিংয়ে কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে বিরোধী দলের একতা আর রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বছরের অর্ধেক সময় আপনি বিদেশে থাকলে, রাজনীতি কীভাবে করবেন? রাজনীতি করতে হলে পুরো সময় দিতে হবে।”

শুধু তাই নয়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইউপিএ-র অস্তিত্ব নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। শরদ পাওয়ারের সঙ্গে সাক্ষাতের পর মমতা বলেছেন, এবার ইউপিএ নয়, ফ্যাসিবাদী শক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আলাদা সংগঠন বানাতে হবে। মমতা ব্যানার্জী পুরোপুরি কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ জোটের অধীনে লড়াই করার সম্ভবনা উড়িয়ে দিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button