টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘সারদার সুবিধা সবথেকে বেশি পৌঁছেছে মমতা ব্যানার্জীর কাছে’- কুনাল ঘোষের পুরোনো ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ একুশের নির্বাচনের আগে নড়েচড়ে বসছে সমস্ত রাজনৈতিক দল। বাংলায় ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে রয়েছে সকলেই। এই পরিস্থিতিতে বিরোধী দলের খুঁত খুঁজে, তা বাংলার মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে দেওয়াই হল অন্য দলের আসল উদ্দেশ্য। এবার সেই কাজ শুরু করলেন অমিত মালব্য (amit malviya)।

তৃণমূল ভবনে রবিবার সাংবাদিক বৈঠক করেন কুণাল ঘোষ। সেই বৈঠকে সরাসরি কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র দিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন কুণাল ঘোষ (kunal ghosh)। তিনি বলেন, ‘যদি হিম্মত থাকে, তাহলে বলুন ভাইপো বলে কার কথা বলছেন?’ কুণাল ঘোষের এই বৈঠক শেষেই স্যোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গেল বেশ পুরনো একটি ভিডিও।

চিটফান্ড কাণ্ডে সাড়ে ৩ বছর কারাবাস করার পর আবারও তৃণমূলে ফিরেছেন কুণাল ঘোষ। তবে দলের মুখপাত্র করার পর তাঁর নামে ওঠা নানা অভিযোগের সামনা করার কথা কি একবারও ভাবেনি তৃণমূল? বর্তমান সময়ে কুণাল ঘোষের বৈঠকের পরই স্যোশাল মিডিয়ায় দুটি ভিডিও ফুটেজ তোলপাড় শুরু হয়ে যায়।

সর্বভারতীয় বিজেপির কমিউনিকেশনের দায়িত্বে থাকা অমিত মালব্য দুটেজ শেয়ার করেছেন, তার দুটোতেই বিস্ফোরক কুণাল ঘোষকে দেখা যায়। একটি ভিডিওতে দেখা যায় কুণাল ঘোষকে জোর করে পুলিশ ভ্যানে তোলা হচ্ছে, আর উনি বলছেন, ‘চিটফান্ডের দয়ায় যারা ক্ষমতায় এসেছেন- মুখ্যমন্ত্রী, ৮ জন MP এবং ৬ জন মিনিস্টার সরাসরি দোষী। তারা সেখানে কি আলোচনা করবে?’

অন্য ভিডিওতে দেখা যায়, কুণাল ঘোষ সাংবাদিকদের বলছেন, ‘সারদা মিডিয়ায় প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে যদি কেউ সবথেকে বেশি সুবিধা পেয়ে থাকেন, তাহলে তাঁর নাম মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়’।

Back to top button