টাইমলাইনপশ্চিমবঙ্গবিধানসভা নির্বাচন

‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশেই অশান্তি পাকানোর চেষ্টা, হিন্দিভাষী গুণ্ডারা অশান্তি করছে’: মমতা ব্যানার্জি

বাংলাহান্ট ডেস্কঃ দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ ঘিরে উত্তাল হয়ে উঠেছে বঙ্গ রাজনীতি। একাধিক কেন্দ্র থেকে উঠে আসছে রাজনৈতিক হিংসার খবর। কোথাও এজেন্টকে বুথে ঢুকতে না দেওয়ার অভিযোগ, তো কোথাও মেরে হাত ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ। সবমিলিয়ে দ্বিতীয় দফায় ভোট গ্রহণ হয়ে উঠেছে সরগরম।

এদিন নন্দীগ্রামের (Nandigram) প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রেয়াপাড়ার ভাড়া বাড়িতেই ঘর বন্দী ছিলেন। তবে দুপুরে সেখান থেকে বেরিয়ে পড়েন ভোটগ্রহণের পরিস্থিতি সরেজমিনে খতিয়ে দেখতে। হুইলচেয়ারে চেপে বয়ালে (Boyal) স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা।

নন্দীগ্রামের পথে মমতা, কর্মীদের অক্সিজেন দিতে প্রথম ডেস্টিনেশান বয়াল

সেখান থেকেই দ্বিতীয় দফার নির্বাচনে রাজনৈতিক সংঘাতের প্রসঙ্গে উত্তেজিত মমতা বললেন ,’হিন্দিভাষী গুণ্ডার অশান্তি করছে। বিহার ও উত্তরপ্রদেশের গুণ্ডারা এসে ঝামেলা পাকাচ্ছে।’ এখানেই থেমে না থেকে মমতা আরও বললেন যে, ‘কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশেই নির্বাচনে বহিরাগত নিয়ে এসে অশান্তি পাকানোর চেষ্টা হচ্ছে’। মমতার এই চাঞ্চল্যকর দাবি ঘিরে দ্বিতীয় দফা ভোটের দিনই শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

প্রার্থী মমতা জানালেন, ‘সকাল থেকে ৬৩টি অভিযোগ করা হয়েছে নির্বাচন কমিশনে (Election Commission)। একটা ব্যবস্থাও নেওয়া হয়নি।’ এমনকি এনিয়ে তিনি আদালতে যাওয়ারও হুঁশিয়ারি দেন বয়াল থেকে। পাশাপাশি বুথ থেকেই রাজ্যপালকে (Jagdeep Dhankar) ফোন করেন মমতা। উল্লেখ্য, বয়ালের ওই সংশ্লিষ্ট বুথের বাইরে ইতিমধ্যে মানবশৃঙ্খল তৈরি করে পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা চলছে।

অন্যদিকে, দ্বিতীয় দফা ভোটের দিনই জয়নগরে সভা করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi)। সেখান থেকে তিনিও এবার নির্বাচনে বিজেপি ২০০ আসন পেরিয়ে যাবে বলে দাবি করলেন।

Related Articles

Back to top button