fbpx
টাইমলাইনভারতরাজনীতি

আজ বৈঠকে বসছে সমস্ত বিরোধী দল, কিন্তু সঙ্গে নেই মায়া, মমতা ও কেজরিবাল

বাংলাহান্ট ডেস্ক :দেশের এই টালমাটাল পরিস্থিতির কারণে আমজনতাকে বিগত কয়েক সপ্তাহে বহুবার গর্জে উঠতে দেখেছে প্রশাসন মহল। আজ সেই একই বিষয় নিয়ে আবার বৈঠকে বসতে চলেছেন বিরোধী দলের নেতারা। তাদের বৈঠকে বসার কারণগুলির মধ্যে অন্যতম সিএবি, এনআরসি ,  সিএএ, এবং এনপিআর ।

এই নিয়ে ডাকা বিরোধী দলগুলোর বৈঠকে হয়তো অনুপস্থিত থাকবেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় , মায়াবতীর বিএসপি এবং অরবিন্দ কেজরিবালের আপ । সব মিলিয়ে আজ দিল্লীতে বসতে চলেছে বৈঠক । এই বৈঠকের মুল উদ্দেশ্য ছিলো বর্তমান পরিস্থিতির প্রতি একত্রে সোচ্চার হওয়া । কিন্তু সেশ পর্যন্ত তা সম্ভব হলনা।

 

 

 

কারন একাধিক নেতারা যোগ দিতে পারবেন না এই শিবিরে। এমনকি এই শিবিরে অনুপস্থিত থাকতে পারেন অখিলেশ যাদব । তাই এনআরসি , সিএবি, এনপিআর নিয়ে বিরোধিতা করার জন্য এখন সবথেকে বেশি প্রয়োজন সব দলের একত্রিত হওয়া ।  যদিও এই বিষয়ে মমতা এবং রাহুল গান্ধী সহ একাধিক বিরোধী নেতা জানান যে এনআরসি র মাধ্যমে ভারতের নাগরিকদের অধিকার এমনকি তাদের নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া  হচ্ছে। আবার এই একই প্রসঙ্গে পাল্টা ঘুরিয়ে মন্ত্যব্য করেন বিজেপি সভাপতি তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ।তিনি বলেন নাগরিকত্ব বিলের কোথাও লেখা নেই এই আইন দ্বারা কোনও নাগরিকের অধিকার কেড়ে নেওয়া হচ্ছে।

আবার অন্যদিকে এই দল্ গুলি যোগদান না করলেও কংগ্রেসের ডাকা এই বৈঠকে আজ যোগ দেবেন বাম দলগুলো । ৮ ফেব্রুয়ারি বিজেপি-র পাশাপাশি কংগ্রেসের সঙ্গেও লড়বেন কেজরিবাল। এছাড়া বিএসপি যে এই ধরনের কোনও মঞ্চে আপাতত আর আসবেন না, সেটাও জানতো কংগ্রেস । মায়াবতীরও এই বৈঠকে না আসার বেশ কিছু ব্যাক্তিগত কারণ আছে তাই সব মিলিয়ে আজ এই বৈঠকে অধরা থাকবে বেশকিছু শক্তিশালী দল।  তাই এতোগুলি দল বাদ দিয়ে কিভাবে বৈঠক সাফল্যমণ্ডিত করে তোলা যায় এখন শুধু সেটাই দেখার অপেক্ষা।

Back to top button
Close